পুঠিয়া পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে ৩০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর পুঠিয়া পৌরসভার মেয়র আল মামুনের বিরুদ্ধে ৩০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। তার ব্যবসায়িক পার্টনার মনিরুজ্জামান আইনজীবির মাধ্যমে ওই টাকা পরিশোধের জন্য মেয়রকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছে।
নোটিশের সাত কর্ম দিবসের মধ্যে টাকা পরিশোধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নইলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবেও জানানো হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। পুঠিয়া পৌরসভা এলাকার মেয়র মামুনের এতো পরিমাণে টাকা কোন খাতে খরচ করেছেন তা নিয়ে অনেকে উদ্বেগ জানিয়েছেন।
আইনজীবী আজমত হোসাইন জানান, জনতা ব্যাংক পুঠিয়া শাখার পাঁচটি চেকের মাধ্যমে মনিরুজ্জামানের কাছ থেকে মেয়র মামুন ৩০ লাখ টাকা গ্রহন করে। কিন্তু সে টাকা ফেরত না দিয়ে আত্মসাত করতে টালবাহনা করছেন। প্রাথমিকভাবে টাকা নেয়ার বিষয়টিও প্রমানিত হয়েছে। এর মধ্যে পাঁচ লাখ করে চারটি চেকে ২০ লাখ এবং একটি চেকে ১০ লাখ টাকা গ্রহন করে।
মনিরুজ্জামান জানান, মেয়র মামুন কনস্টাকশন ও পেটেøাল পাম্পের উন্নয়নের জন্য আমার কাছে থেকে টাকাগুলো নিয়েছিলো। পরে টাকা ফেরত দেয়ার জন্য অনেকবার অনুরোধ করা হয়েছে। কিন্তু টাকা না দিয়ে সেটি আত্মসাত করার চেষ্টা করছে। বিশেষ করে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর টাকা দিতে অস্বীকার জানিয়েছে। তাই বাধ্য হয়ে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে কাজ না হলে আদালতে মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানান তিনি।
এ বিষয়ে জানতে পুঠিয়া পৌরসভার মেয়র আল মামুনের মোবাইলে যোগাযোগ করার চেস্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।


প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০২১ | সময়: ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ | সুমন শেখ

আরও খবর