Daily Sunshine

দুর্যোগ সামনে দিয়ে এগুতে হবে

Share

মহান স্বাধীনতা দিবস
মহান স্বাধীনতার ৪৯তম বার্ষিকী সম্পূর্ণ ভিন্ন এক প্রেক্ষাপটে আজ জাতির সামনে এসেছে। উৎসবে রঙিন হবে না এই দিনটি। কেননা বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের যে সংক্রমণ ঘটেছে তা বাংলাদেশেও এসে লেগেছে। ইতোমধ্যে দেশেও ৫ জন এই ভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যুবরণ করেছেন। আর আক্রান্তের সংখ্যা জন দিনে দিনে বাড়ছে সংক্রমনের হার। এমন অবস্থায় আজ স্বাধীনতা দিবসের সব কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে।
তবে দিনটি অবশ্যই স্মরণ করবে জাতি এবং এই মরণ ব্যাধি থেকে মুক্তি পেতে ও দেশ জাতি ও মুসলিম উম্মার কল্যাণ কামনা করে সর্বশক্তিমান আল্লাহ তায়ালার সাহায্য প্রার্থনা করবেন। সত্তুরের নির্বাচনে পূর্ব বাংলার মানুষ অকুণ্ঠ সমর্থন দেন আওয়ামী লীগ ও তার নেতা শেখ মুজিবকে। ইতোমধ্যে শেখ মুজিব বাংলার অবিসংবাদিতা নেতা হয়ে উঠেন। আর বাংলার ছাত্র সমাজ তাঁকে বঙ্গবন্ধু উপাধীতে ভূষিত করেন। বাংলার মানুষ বঙ্গবন্ধু ও তার দলের প্রতি সমর্থন দিলেও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্টতা পাওয়া আওয়ামী লীগের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি পাকিস্তান সামরিক জান্তা। বরং আলোচনার ফাঁকে ২৫শে মার্চ মধ্যরাতে অপারেশন সার্চ লাইটের নামে বাঙালির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর সদস্যরা। শুরু করে ব্যাপক গণহত্যা। কার্যত: আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও প্রগতি শীল রাজনৈতিক নেতাদের হত্যা করাই ছিল এর মূল উদ্দেশ্য। গ্রেফতার করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকেও। বঙ্গবন্ধু এর পূর্ব মূহুর্তে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা দেন।
এই পরিস্থিতিতে বাংলার মানুষ বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। শুরু হয় পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে পূর্ব বাংলাকে শত্রুমুক্ত করার যুদ্ধ। এই যুদ্ধ মাত্র ক’দিনের মধ্যেই সর্বাত্মক শসস্ত্র যুদ্ধে রূপ নেয়। বাংলার আবাল বৃদ্ধ বণিতা সকলে সেই যুদ্ধে অংশ নেন মাত্র গুটি কয়েক বাঙালি ছাড়া। পাকিস্তান হানাদারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে বাঙালিরা জয়ী হয়। দেশ শত্রুমুক্ত হয় ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর। নয় মাসের যুদ্ধের মাধ্যমে গড়ে ওঠা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের মানুষ আজ তার স্বাধীনতার ৪৯তম বার্ষিকীতে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে বাংলার অবিসংবাদিত নেতা বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ও সকল শহীদকে।
স্বাধীনতার ৪৯তম বার্ষিকীতে সারা বিশ্বের সাথে বাংলাদেশও পড়েছে এক ভিন্ন অবস্থায়। প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত জনজীবন। তাই আজ কোন ধরনের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়া দেশে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হচ্ছে। আজকের দিনে আমাদের এই ভিন্ন পরিস্থিতি থেকে উত্তরনের যেমন চেষ্টা করতে হবে ঠিক তেমনি স্বাধীনতার সুফল যেন বাংলার সব ঘরে পৌঁছে দেয়া যায় সে দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে সামনের দিনগুলোতে আরো এগিয়ে যাবে সম্পূর্ণ ক্ষুধা দারিদ্র্য মুক্ত উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে এটাই আজকের দিনে আমাদের প্রত্যাশা।

মার্চ ২৬
০৪:২৬ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

রোজিনা সুলতানা রোজি : সকাল থেকে রাত অবধি ডাবের সঙ্গেই সচল তার জীবিকার চাকা। প্রায় গত ৮ বছরের বেশী সময় ধরে সড়কের পাশে ফুটপাতে ডাব বিক্রি করে এক সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে তার সংসার ভালোই চলছে। ক’দিন আগেও প্রতিদিন ডাব বিক্রি করে প্রতিদিন ৬ থেকে সাতশ টাকা আয় হয়েছে তার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

স্টাফ রিপোর্টার : তিন কোটি ৪৫ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের রাজশাহী শাখার কর্মকর্তা এফএম শামসুল ইসলাম ফয়সালকে সাত দিনের রিমান্ডে চায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আদালতে তার এই রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। আগামী ১ মার্চ রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে। এর আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি এফএম শামসুল ইসলাম

বিস্তারিত