Daily Sunshine

তসলিমাকে এক হাত নিলেন এ আর রহমানের মেয়ে

Share

সানশাইন ডেস্ক: খ্যাতিমান সুরকার এ আর রহমান। বোরকা পরা নিয়ে অনেকদিন থেকেই আলোচনায় তার মেয়ে খাতিজা। সম্প্রতি মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে বিষয়টি নিয়ে লেখিকা তসলিমা নাসরিন লেখেন, আমি এ আর রহমানের সংগীত খুবই পছন্দ করি। কিন্তু যখনই তার মেয়ের দিকে তাকাই আমার দম বন্ধ হয়ে যায়। একটি শিক্ষিত ও সংস্কৃতিমনা পরিবারের সদস্য হয়েও কত সহজে ব্রেইনওয়াস হয়, এটি খুবই হতাশার।
এর উত্তরে ফটো শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে আগুনের ছবি পোস্ট করে খাতিজা লিখেছেন, চুপ আছি তার মানে এই নয় আমি কিছু জানি না, শান্ত হয়ে আছি বলেই মেনে নিয়েছি তা নয়। আমার দয়াকে দুর্বলতা মনে করবেন না। যাদের দম বন্ধ হয়ে যায়, বিশুদ্ধ বাতাস গ্রহণ করুন।
অপর একটি পোস্টে তসলিমা নাসরিনের পোস্টের স্ক্রিনশট প্রকাশ করে ক্যাপশনে তিনি লেখেন, বছর না ঘুরতেই এই বিষয়টি আবারো আলোচনায়। মাঝে এই দেশে অনেক কিছুই হয়ে গেছে এবং সবাই জানেন নারীরা কী পোশাক পরতে চান। ওয়াও, আমি খুবই অবাক। যখনই এই বিষয়টি আলোচনায় আসে আমার ভেতর আগুন জ্বলে ওঠে এবং অনেক কিছু বলতে ইচ্ছে করে।
আমার সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো অনুশোচনা নেই এবং নিজেকে দুর্বলও মনে করি না। আমি যা তাতেই খুশি এবং গর্বিত এবং যারা আমাকে এভাবে গ্রহণ করেছেন তাদের ধন্যবাদ। সৃষ্টিকর্তা চাইলে আমার কাজই কথা বলবে। এ বিষয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না। অনেকেই হয়তো ভাবছেন, এই বিষয় নিয়ে কেন কথা বলছি। দুঃখের বিষয় এটি প্রায়ই আলোচনা আসে এবং এটি নিয়ে সোচ্চার হওয়া উচিত। এজন্যই এটি করেছি।
তসলিমা নাসরিনকে উদ্দেশ্য করে তিনি লেখেন, প্রিয় তসলিমা নাসরিন, আমি দুঃখিত আমার পোশাকে আপনার দম বন্ধ হয়ে যায়। দয়াকরে মুক্ত বাতাস গ্রহণ করুন। আমার দম বন্ধ হয় না, কারণ আমি যে নীতি মেনে চলি তাতে আমি গর্বিত। আমি আপনাকে পরামর্শ দিব, প্রকৃত নারীবাদ কী তা গুগল করে জেনে নিন। নারীবাদ মানে অন্য মেয়েকে হেয় করা ও কোনো বিষয়ে তার বাবাকে টেনে আনা নয়। আর কখনো আপনাকে আমার বোরকা পরা ছবি পাঠিয়েছি কিনা আমার মনে পড়ে না।

ফেব্রুয়ারি ১৭
০৪:২৭ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

রোজিনা সুলতানা রোজি : সকাল থেকে রাত অবধি ডাবের সঙ্গেই সচল তার জীবিকার চাকা। প্রায় গত ৮ বছরের বেশী সময় ধরে সড়কের পাশে ফুটপাতে ডাব বিক্রি করে এক সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে তার সংসার ভালোই চলছে। ক’দিন আগেও প্রতিদিন ডাব বিক্রি করে প্রতিদিন ৬ থেকে সাতশ টাকা আয় হয়েছে তার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

স্টাফ রিপোর্টার : তিন কোটি ৪৫ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের রাজশাহী শাখার কর্মকর্তা এফএম শামসুল ইসলাম ফয়সালকে সাত দিনের রিমান্ডে চায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আদালতে তার এই রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। আগামী ১ মার্চ রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে। এর আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি এফএম শামসুল ইসলাম

বিস্তারিত