Daily Sunshine

ফাইনালে রাজশাহী

Share

সানশাইন ডেস্ক : চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনালে উঠলো রাজশাহী রয়্যাালস। আন্দ্রে রাসেলের অতিমানবীয় ইনিংসে ২ উইকেটের জয় পায় তারা। বড় টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুতেই চাপে পড়ে রাজশাহী। দুই ওপেনার ফিরে যান মাত্র ১৪ রানে। এরপর ইরফান শুক্করের ৪৫ রান ছাড়া আর কেউই সেভাবে দাড়াতে পারেননি। তবে দায়িত্ব একাই কাঁধে তুলে নেন অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। স্বভাবসুলভ ঝড় তুলে দলকে জয় এনে দেন।
এর আগে ক্রিস গেইল ঝড়ে রাজশাহীর বিপক্ষে বড় স্কোর দাঁড় করায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান করে বন্দরনগরীর দল। এর আগে, টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ভালো শুরু হয়নি চট্টগ্রামের। শুরুতে বিদায় নেন ওপেনার জিয়াউর রহমান। ১২ বলে ৬ রান করে আউট হন তিনি। তার বিদায়ে শুরু হয় গেইল ঝড়। খেলেন ২৪ বলে ৬০ রানের টর্নেডো ইনিংস।
এদিকে, শুরু থেকে বিপিএলে ভালো করতে থাকা ইমরুল কায়েসও আজ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। ৭ বলে ৪ রান করেন এই বাঁ-হাতি। এরইমাঝে ১৮ বলে ৩৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন দলপতি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার বিদায়ে শুরু হয় উইকেট ঝড়। ফিরে যান ওয়ালটন, নুরুল হাসান রায়াদ এমরিট। শেষ দিকে গুনারান্তের ঝড়ে লড়াইয়ের পুঁজি পায় বন্দরনগরীর দল।
চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : ১৬৪-৯ (ওভার ২০), জিয়াউর রহমান ৬ (১২), ক্রিস গেইল ৬০ (২৪), ইমরুল কায়েস ৫ (৭), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৩৩ (১৮), চাঁদউইক ওয়ালটন ৫ (১১), নুরুল হাসান ০ (২), আসলে গুনারান্তে ৩১ (২৫), রুবেল হোসাইন ০ (২), নাসুম আহমেদ ০ (২), মেহেদী হাসান রানা ০* (১)।
বোলার- মোহাম্মদ ইরফান ৪-১-১৬-২, আবু জায়েদ রাহী ১-০-১৬-০, শোয়েব মালিক ১-০-১৮-০, কামরুল ইসলাম ২-০-১৬-০, আন্দ্রে রাসেল ৪-০-৩৫-১, মোহাম্মদ নাওয়াজ ৪-১-১৩-২, আফিফ হোসেন ১-০-২০-১, অলক কপালি ৩-০-১৯-১।
রাজশাহী রয়্যালস : লিটন দাস ৬ (৬), আফিফ হোসেন ২ (৪), ইরফান সুক্কুর ৪৫ (৪২), অলক কাপালি ৯ (১১), শোয়েব মালিক ১৪ (২২), আন্দ্রে রাসেল, মোহাম্মদ নওয়াজ ১৪ (৫), ফরহাদ রেজা ৬ (৩), কামরুল ইসলাম রাব্বি ০ (১), আবু জায়েদ।
বোলার- মেহেদী হাসান, রুবেল হোসেন ৪-০-৩২-২, এমরিত ৪-০-৪১-২, নাসুম আহমেদ ২-০-১১-০, মাহমুদুল্লাহ ১-০-১০-১, জিয়াউর রহমান ৪-০-১৬-১।

জানুয়ারি ১৬
০৪:৩৯ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

মাহবুব মোরসেদ : আকবর আলী। বয়স ৪৮ বছর। চার ভাই ও এক বোন। পিতা আব্দুল্লাহ। বাড়ী নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলার আই-হাই গ্রামে। বাবা-মা মারা গেছে অনেক আগে। সীমান্তবর্তী এই উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা গ্রাম এটি। কাজের সন্ধানে অনেক বছর আগে অন্য দেশে পাড়ি জমায় অন্য তিন ভাই, মোনতাজ, লতিফ ও বাবু।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত