Daily Sunshine

মুজিবনগর সরকারের আরও ৩২ কর্মচারীকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি

Share

সানশাইন ডেস্ক: মুজিবনগর সরকারের আরও ৩২ কর্মচারীকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ৬৫তম সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এদের স্বীকৃতির গেজেট জারি করা হয়েছে। এই ৩২ জনকে নিয়ে মুজিবনগর সরকারের মোট ৬৭০ জন কর্মচারী মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন।
ঢাকার ধানমণ্ডির দৌলত আহমেদ ভূঁইয়া, লালমনিরহাট পাটগ্রামের মৃত মো. রফিকুল ইসলাম বসুনিয়া, দিনাজপুর সদরের মৃত হাফিজ উদ্দীন আহাম্মদ, লালমনিরহাট পাটগ্রামের কাজি ফায়জুল বারি, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার নিরঞ্জন ভৌমিক, খাগড়াছড়ির রামগড়ের সুরেশ চন্দ্র বিশ্বাস, ঢাকার ইস্কাটনের কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ, ঢাকার আদাবরের শরীফা খাতুন মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেয়েছেন।
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর মো. আলতাফ হোসেন, পাবনার সুজানগরের মো. ইউসুফ আলী, চট্টগ্রামের রাউজানের রনজিৎ কুমার সেন, নীলফামারীর জলঢাকার মৃত আব্দুল আজিজ বসুনিয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার মো. আবু তাহের, নওগাঁ সদরের অমূল্য রঞ্জন দাস এবং গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের মো. আব্দুল হাসেম মিয়াকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার।
নিলফামারীর ডিমলার মো. আব্দুর রহমান, ঢাকার মোহাম্মদপুরের এ কে হেফাজত উল্লাহ, মৌলভীবাজারের রংগলাল সেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের মো. খলিলুর রহমান মোল্লা, রংপুর সদরের মো. আব্দুল মান্নান, হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের সত্যেন্দ্র কুমার দেব, কুমিল্লার কোতোয়ালির সুজিত কুমার রায়, ঢাকার শান্তিনগরের গৌর গোপাল ঘোষ মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেয়েছেন।
এছাড়া ঢাকার উত্তরার আবদুল গাফফার চৌধুরী, গাইবান্ধা সদরের মো. শাহ আলম, ঢাকার তেজগাঁওয়ের মো. জসিম উদ্দিন, নড়াইল সদরের নৃপেন্দ্র নাথ মজুমদার, রংপুর সদরের রমিজ উদ্দিন আহমেদ, ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডুর মো. জয়নাল আবেদীন, নীলফামারীর জলঢাকার মো. খয়রাত হোসেন, রংপুর সদরের মৃত মোহাম্মদ আলী এবং লালমনিরহাটের হাতীবান্ধার মো. আব্দুল জলিল প্রামাণিককে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার বা মুজিবনগর সরকার গঠিত হয়। ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল এই সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যরা শপথ নেন।

জানুয়ারি ১৫
০৩:৫৯ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

মাহবুব মোরসেদ : আকবর আলী। বয়স ৪৮ বছর। চার ভাই ও এক বোন। পিতা আব্দুল্লাহ। বাড়ী নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলার আই-হাই গ্রামে। বাবা-মা মারা গেছে অনেক আগে। সীমান্তবর্তী এই উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা গ্রাম এটি। কাজের সন্ধানে অনেক বছর আগে অন্য দেশে পাড়ি জমায় অন্য তিন ভাই, মোনতাজ, লতিফ ও বাবু।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত