Daily Sunshine

বিমান বিধ্বস্তের কারণ মানবীয় ভুল: ইরান

Share

সানশাইন ডেস্ক: ইউক্রেনীয় উড়োজাহাজাটিকে ভুলবশত গুলি করে নামানোর কথা স্বীকার করে গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছে ইরান। গত বুধবার ভোরে তেহরানের কাছে ১৭৬ আরোহী নিয়ে ওই উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে আসছিল, ইরানের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতই এর কারণ। এ ঘটনায় ইউক্রেইন এয়ারলাইন্সের ওই উড়োজাহাজের সব আরোহী নিহত হয়। ইরাকের দুটি মার্কিন ঘাঁটিতে হামলার পর প্রবল উত্তেজনা চলার সময় প্রাথমিকভাবে অভিযোগটি অস্বীকার করেছিল ইরান। তখন ইরানের কর্মকর্তারা তা ডাঁহা মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়ে বলছিলেন, যান্ত্রিক ত্রুটিতেই দুর্ঘটনায় পড়ে ওই উড়োজাহাজটি।
কিন্তু শনিবার উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ হিসেবে ‘মানবীয় ভুলের’ স্বীকারোক্তি এসেছে ইরানের কাছ থেকে, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এক বিবৃতিতে ইরানের সামরিক বাহিনীর বলে, “বিমানটি রেভোল্যুশনারি গার্ডের স্পর্শকাতর সামরিক স্থাপনার খুব কাছ দিয়ে উড়ছিল এবং মানবীয় ভুলের কারণে এটি বিধ্বস্ত হয়েছে, যার দায় সংশ্লিষ্টদের নিতে হবে।”
৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের স্থানীয় সময় ভোররাতে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেমানি নিহত হওয়ার পর ওই অঞ্চলে প্রবল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এরপর বুধবার ভোররাতে মার্কিন বাহিনীর অবস্থান করা ইরাকের দুটি সামরিক ঘাঁটিতে ডজনেরও বেশি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান।
এর ঘণ্টা দুয়েক পর তেহারানের ইমাম খোমেনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের ছয় মিনিট পর ইউক্রেইনীয় উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হয়। উড়োজাহাজটি মার্কিন বিমান নির্মাতা কোম্পানি বোয়িংয়ের তৈরি ছিল। যাত্রীদের অধিকাংশই ছিল ইরান ও কানাডার নাগরিক।

জানুয়ারি ১২
০৪:১২ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

রোজিনা সুলতানা রোজি : জীবন তো চলবেই জীবনের মতো ! তবে জীবনের মান চলমান রাখতে বিভিন্ন জন বেছে নিচ্ছেন বিচিত্র পেশা। কারন, জীবনের ভার বহন করতে জীবিকা প্রয়োজন সর্বাগ্রে। কেউ ছোটবেলা তো কেউ বড় হয়ে, সবাইকেই কোনো না কোনো পেশার সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতেই হয়। যার যার সুবিধা মত তারা

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত