Daily Sunshine

হেসেখেলে রাজশাহীর সিলেট বধ

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: নাজমুল হোসেন মিলনের বল লং অফ দিয়ে বাউন্ডারিতে পাঠালেন শোয়েব মালিক। ওই চারে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় রাজশাহী রয়্যালসের। লক্ষ্য ছিল মাত্র ৯২। ৮ উইকেট ও ৫৫ বল হাতে রেখে সহজেই জয়ের স্বাদ পায় রাজশাহী। দুই ম্যাচে এটি রাজশাহীর দ্বিতীয় জয়। সমান ম্যাচে সিলেট থান্ডারের এটি দ্বিতীয় হার।
শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলায় টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে মাত্র ৯১ রানে গুটিয়ে যায় সিলেট। দুর্দান্ত বোলিংয়ের পর রাজশাহীর ব্যাটিংও ছিল নজরকাড়া। হেসেখেলে তারা হারিয়েছে রাজশাহীকে। ১০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৭২ রান তুলেছিল সিলেট। সেখান থেকে মাত্র ১৯ রান যোগ করতেই অলআউট। রাজশাহী রয়্যালসের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে সিলেট ১৫.৩ ওভারে গুটিয়ে যায় মাত্র ৯১ রানে।
শুরুতে সিলেটের দুই ওপেনার রনি তালুকদার ও জনসন চার্লস ৪ ওভারে ৩৬ রান তুলেছিলেন। এরপর দ্রুত ৩ উইকেট হারায় তারা। আন্দ্রে রাসেল দারুণ স্লোয়ারে এলবিডব্লিউ করেন রনি তালুকদারকে (১৯)। পরের ওভারে অলোক কাপালি পরপর দুই বলে বোল্ড করেন চার্লস (১৬) ও জীবন মেন্ডিসকে (০)।
সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে ৩১ রানের জুটি গড়েন মিথুন ও মোসাদ্দেক। মিথুন দুই চার মেরে ভালো শুরু করলেও নিজের ইনিংস বড় করতে পারেননি। আগের দিন ঝড় তোলা মিথুন আজ আউট হন ২০ রানে। তার আউট দিয়ে পথ হারানো শুরু সিলেটের। পরের ৩২ বলে ৬ উইকেট হারিয়ে সিলেট গুটিয়ে যায় অল্পরানে।
আলগা শট, বাজে টাইমিং ও রানিংয়ে গড়বড় করে উইকেট হারায় সিলেট। ১ চার ও ১ ছক্কায় মোসাদ্দেক ভালো কিছুর আশা দেখালেও পারেননি দলের প্রয়োজন মেটাতে। ২০ রানে শেষ হয় তার ইনিংস। শেষ দিকে ৫ ব্যাটসম্যানের সম্মিলিত রান ছিল মাত্র ৫। ভালো বোলিংয়ের পাশাপাশি রাজশাহীর ফিল্ডিংও ছিল নজরকাড়া। শুরুতে শোয়েব মালিক রনি তালুকদারের ক্যাচ ছাড়লেও পরবর্তীতে রাসেল, বোপারারা ছিলেন দারুণ। আজও দুটি রান আউট করেছেন তারা। ৩ ওভারে ১৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে রাজশাহীর সেরা বোলার অলোক। ফরহাদ রেজা ৯ রানে ২টি ও বোপারা ১০ রানে ২ উইকেট নেন।
লক্ষ্য তাড়ায় শুরুটা ভালো ছিল না রাজশাহীর। কোনো রান না দিয়ে প্রথম ওভারে হজরতউল্লাহ জাজাইয়ের উইকেট নেন স্পিনার নাঈম হাসান। দ্বিতীয় উইকেটে দলকে ৬২ রানের জুটি এনে দেন আফিফ ও লিটন। দুজনই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে দলকে এগিয়ে নেন জয়ের পথে।
পাওয়ার প্লে’র পরের ওভারে এ জুটি ভাঙেন আফগান পেসার নাভীন-উল-হক। ২৫ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৩০ রান করা আফিফ ক্যাচ দেন মোসাদ্দেকের হাতে। সঙ্গী হারালেও লিটন ছিলেন অনসং। কোনো ভুল শট না খেলে ইনিংসের শেষ পর্যন্ত টিকে ছিলেন। জাতীয় দলের এ ওপেনার ২৬ বলে করেন ৪৪ রান। ৭ চারে সাজান নিজের ইনিংসটি। তার সঙ্গে ১১ বলে ১৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন মালিক। নিয়ন্ত্রিত বোলিং, ভালো ফিল্ডিংয়ের পর নিখুঁত ব্যাটিং; তিনের মিশেলে রাজশাহী পেয়েছে দুর্দান্ত জয়। তাদের ম্যাচের নায়ক অলোক কাপালি।

ডিসেম্বর ১৪
০৪:২৩ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

পুষ্পমেলায় ২৬৫ প্রজাতির গোলাপ!

পুষ্পমেলায় ২৬৫ প্রজাতির গোলাপ!

আসাদুজ্জামান নূর : ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে হয়তো গোলাপ ফুলের জুড়ি নেই, তাই হয়তো অন্য কোন ফুলের নামে দিবস পালিত হয় না। কিন্তু ৭ ফেব্রুয়ারি পালিত হয় রোজ ডে। এদিন ভালোবাসার মানুষকে গোলাপ ফুল উপহার দেন অনেকেই। এছাড়াও গোলাপের বিশেষত্ব এটা সব ঋতুতেই পাওয়া যায়। সবার পছন্দের তালিকার শীর্ষে গোলাপ না

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত