Daily Sunshine

রাজশাহীতে বিজিবি’র অভিযানে ফেন্সিডিল ও গাঁজা জব্দ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীতে বিজিবির পৃথক অভিযানে ফেন্সিডিল, গাঁজা ও কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে। শনিবার পৃথক তিন জায়গায় এ অভিযান চালায় রাজশাহী ব্যাটালিয়ন (১ বিজিবি)।
শনিবার বিকেলে রাজশাহী ব্যাটালিয়ন ১ বিজিবি অধীনস্থ ১০নং পদ্মারচর বিওপি’র নায়েব সুবেদার রেজাউল করিমের সঙ্গে চারজনের একটি বিশেষ টহল দল রাজশাহী জেলার কাটাখালী থানাধীন খয়েরবাগান নামক এলাকায় টহল পরিচালনা করে ১৮০ বোতল ফেন্সিডিল এবং ১টি প্লাস্টিক বস্তা জব্দ করতে সক্ষম হয়। জব্দকৃত মালামালের আনুমানিক সিজার মূল্য ৭২ হাজার ১০ টাকা। দুপুরে অপর এক অভিযানে রাজশাহী’র অধীনস্থ সোনাইকান্দি বিওপি’র নায়েব সুবেদার নাছির উদ্দিনের সাথে ০৩ জনের একটি নিয়মিত টহল দল রাজশাহী জেলার দামকুড়া থানাধীন নবগংঙ্গা নামক এলাকায় টহল পরিচালনা করে ২ দশমিক ৫ কেজি জট গাঁজা, নতুন কারেন্ট জাল ৮০০ মিটার এবং পুরাতন কারেন্ট জাল ১০০ মিটার জব্দ করতে সক্ষম হয়। জব্দকৃত গাঁজা ও কারেন্ট জালের আনুমানিক সিজার মূল্য ২৫ হাজার ২৫০ টাকা।
দুপুরে অপর এক অভিযানে রাজশাহী’র অধীনস্থ ইউসুফপুর বিওপি’র নায়েব সুবেদার ফরিদ উদ্দিনের সাথে ০৪ জনের একটি বিশেষ টহল দল রাজশাহী জেলার চারঘাট থানাধীন চকপাড়া নামক এলাকায় টহল পরিচালনা করে ১৮৫ বোতল ফেন্সিডিল এবং ০১ টি প্লাস্টিক বস্তা জব্দ করতে সক্ষম হয়। জব্দকৃত মালামালের আনুমানিক সিজার মূল্য ৭৪ হাজার ১০ টাকা।
অভিযানগুলোতে টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে মালামাল ফেলে পালিয়ে যাওয়ায় উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে আটক বা সনাক্ত করতে পারেনি টহল দল। জব্দকৃত মাদকদ্রব্য প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ব্যাটালিয়নের সিজার স্টোরে জমা করে তা পরবর্তীতে জনসম্মুখে ধংস করা হবে।

নভেম্বর ১০
০৩:৫২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শিল্পের নান্দনিকতায় মুগ্ধ দর্শনার্থী

শিল্পের নান্দনিকতায়  মুগ্ধ দর্শনার্থী

রোজিনা সুলতানা রোজি : এ যেন এক অন্য সবুজের সমারোহ এবং প্রকৃতিপ্রেমীদের মিলন মেলা। গাঢ় সবুজের ফাঁকে ফাঁকে শোভা পাচ্ছে লাল, সাদা, গোলাপী, হলুদসহ হরেক রকম ফুল। টবে বসানো আস্ত আস্ত সবুজ গাছের খর্বাকৃতি। বাংলাবট, লাইকড়, তেঁতুল, কামীনি প্রভৃতি সব গাছের সমারোহ। এ যেন শিল্পীর ছোয়ায় একেকটি নান্দনিক বৃক্ষের সমাহার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত