Daily Sunshine

তালাকনামায় জোরকরে নারীর স্বাক্ষর নেয়ার অভিযোগ

Share

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারায় জোর পূর্বক তালাকনামায় স্বাক্ষর করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় তিন বছর পূর্বে উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের বীরকয়া গ্রামের ইয়াদ আলীর ছেলে শাহজামালের সাথে একই উপজেলার নরদাশ ইউনিয়নের নরদাশ গ্রামের আফাজ উদ্দীনের মেয়ে সালমার বিয়ে হয়। তাদের একটি শিশুপুত্র রয়েছে।
কাজ-কর্ম না করার অপরাধে সালমার শশুর বাড়ির লোকজন সালমাকে মাঝে মধ্যে মারধর করতো বলে জানান, মেয়ের বাবা আফাজ উদ্দীন। মেয়েকে মারধরের সংবাদে সালমার বাবা ও চাচা বীরকয়া গ্রামে গেলে জামাই, জামাইয়ের বাবা ইয়াদ আলী ও আত্মীয়স্বজন মিলে তাদের আটকিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে সাদা কাগজ ও তালাকনামায় জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেয়।
দেনমোহর ধার্য্য ছিল ৯০ হাজার টাকা। সাদা কাগজে কুড়িজন গণ্যমান্য ব্যক্তির স্বাক্ষর থাকলেও কনে পক্ষের বাপ-চাচা ছাড়া নরদাশ গ্রামের কোন গণ্যমান্য ব্যক্তির স্বাক্ষর নাই।
সরজমিন বীরকয়া গ্রামে গেলে শাহজামাল প্রতিবেশীর বিয়েতে বরযাত্রী হওয়ায় তার বক্তব্য জানা যায়নি। শাহজামালের বোন ও মা জমেলা বিবি জানান, বিয়ের সময় ৫৫ হাজার টাকা নেয়া হয়েছিল ঐ টাকা দিয়ে আপোষে তালাক দেয়া হয়েছে। কেন তালাক হলো জানতে চাইলে তারা জানান, আমার ছেলে শাহজামালকে বউমার পছন্দ না তাই।
বীরকয়া গ্রামের যে নিকাহ রেজিস্ট্রার রফাতুল্যা (কাজী) তালাকনামা সম্পন্ন করেন, তিনি কাচারী কোয়ালপিাড়া ইউনিয়নের কাজী এবং বীরকয়া বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলে দাবী করেন। আপনার বাড়ি বীরকয়া বাসুপাড়া ইউনিয়নে, আর আপনি কাচারী কোয়ালীপাড়া ইউনিয়নের কাজী হলেন কী ভাবে?
এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমার কোয়ালীপাড়া ও রাজশাহীতেও বাড়ি আছে। কাজী রফাতুল্যা ৫৫ হাজার টাকায় তালাকনামা হয়েছে বলে স্বীকার করেন। ৯০ হাজার টাকা দেন মোহর আর ৫৫ হাজার টাকায় রফাদফা এটা কোন আইনে সমর্থন করে, কাজী সাহেব এমন প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেনি। বাগমারা উপজেলা নিকাহ রেজিস্ট্রার সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম জানান, রফাতুল্যা কাজীর লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে, তিনি আমাদের সদস্য নন।

নভেম্বর ১০
০৩:৫২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

হেমন্তেই শীতের পদধ্বনি

ফয়সাল আলম: কুয়াশার চাদরে মুড়ে শীত আসছে। এখন যদিও হেমন্তকাল তবুও শীতের আগমনী বার্তা শুরু হয়েছে রাজশাহী অঞ্চলে। কমতে শুরু করেছে তাপমাত্রা, অনুভূত হচ্ছে শীতের পদধ্বনি। সন্ধ্যার পর থেকেই শীত অনুভূত হচ্ছে। রাতে ও মধ্যরাতে অনুভূত হচ্ছে আরও বেশী। জেলা শহর ও সীমান্তবর্তী উপশহরসহ গ্রামাঞ্চলে শীত পড়তে শুরু করেছে। সন্ধ্যালগ্নে

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত