Daily Sunshine

নিরাপদে ওমান পৌঁছেছে ফুটবল দল

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: আগের দিন রাতে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বাংলাদেশ ফুটবল দলকে বহন করা ওমানগামী বিমান মাঝ পথ থেকে আবার ফিরে আসে ঢাকায়। তবে সোমবার সকালে বিমানের অন্য একটি ফ্লাইটে নিরাপদে ওমান পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল।
সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে রওনা দিয়ে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় ওমানে পৌঁছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ওমানে পৌঁছানোর পর জাতীয় দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রুপু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘আমাদের নির্ধারিত ফ্লাইট ছিল রবিবার রাত পৌনে ১০টায়। ফ্লাইট ছেড়েছিল নির্ধারিত সময়ের পৌনে দুই ঘণ্টা পর। এরপর বিমান প্রায় এক ঘণ্টা আকাশে ওড়ার পর আবার তা ফিরে আসে (ঢাকায়)। আজ সকালে অন্য ফ্লাইটে ঠিক মতোই ওমানে এসেছি।’
রবিবারের ফ্লাইট প্রসঙ্গে রুপু বলেছেন, ‘আগের দিন (রবিবার) রাতের ফ্লাইটে এতটাও খারাপ পরিস্থিতি ছিল না। বিমানের ভেতরে বিদ্যুৎ ঠিকমতো কাজ করছিল না। বিমান ঝাঁকিও খাচ্ছিলো। যে কারণে বিমান কর্তৃপক্ষ মনে করেছে চার ঘণ্টা ফ্লাই করা সম্ভব না। আমরা ঘণ্টা খানেক ফ্লাই করে আবার ঢাকায় ফিরে আসি। আমাদের কোনও সমস্যা হয়নি। অবশ্য যখনই যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়, তখন স্বাভাবিক ভাবেই আতঙ্কিত হয়েছে অনেকে। তবে এমন কোনও ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি।’
বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আগামী ১৪ নভেম্বর ওমানের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। সেই ম্যাচের আগে দলে এর প্রভাব পড়বে না বলেই বিশ্বাস সহকারী কোচ মাসুদ পারভেজ কায়সারের, ‘দলের সবাই সুস্থ আছে। কোনও অঘটন হয়নি। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ভারত ও কাতারের বিপক্ষে ভালো খেলেছে দল। ওমানও শক্তিশালী, চেষ্টা থাকবে তাদের বিপক্ষে ভালো করার।’

নভেম্বর ০৫
০৪:১০ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বাবুর্চি থেকে হোটেল মালিক আফজাল

বাবুর্চি থেকে হোটেল  মালিক আফজাল

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: ছিলেন বাবুর্চি এখন হোটেল মালিক। ৯০’ এর দশকে হোটেলের বয় হিসাবে যাত্রা শুরু এই যুবকের। আজ তিনি নিজেই একটি হোটেল পরিচালনা করছে। সুদীর্ঘ এই পেশাদার জীবনে অনেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অর্থ, খ্যাতি, সম্মান ও সর্বোপরি সবার ভালোবাসা। এ ছাড়া বাগমারার সকল হোটেল কর্মচারিরা তাকে নেতাও বানিয়েছে। তিনি

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত