Daily Sunshine

দ্রুত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করে আইনের মুখোমুখি করা হোক

Share

অধ্যক্ষকে পানিতে ফেললো ছাত্রলীগ
রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদকে শনিবার তাঁরই প্রতিষ্ঠানের কয়েকজন শিক্ষার্থী নাজেহাল করেছেন। যোহরের নামাজ আদায় শেষে তিনি যখন তাঁর দফতরে ফিরছিলেন সে সময় ওই শিক্ষার্থীরা তাঁকে পথ রোধ করে টেনে হাচড়ে ও ধাক্কা দিয়ে পুকুরপাড়ে নিয়ে পানিতে ফেলে দেন। চরম ভাবে নাজেহাল অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন ভাগ্যগুনে প্রাণে বেঁচে গেছেন সাঁতার জানায় এবং মানসিক ভাবে দুর্বল না থাকায়। গতকালকের পত্রিকায় কতিপয় শিক্ষার্থীর এই নির্লজ্জ ও মানবিক মূল্যবোধহীন কর্মকাণ্ডের খবর প্রকাশিত হয়েছে। দুর্বৃত্ত এসব শিক্ষার্থী ছাত্রলীগের সাথে যুক্ত বলে দেশের সবকটি গণমাধ্যমে বলা হয়েছে। পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ ৫০ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ ২৫ জনকে ওই দিন রাতেই আটক করে এবং গতকাল এদের মধ্যে পাঁচজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে গণমাধ্যমের সর্বশেষ খবরে বলা হয়েছে।
পত্রিকার খবর থেকে জানা যায় ছাত্রলীগের কর্মীরা প্রায়ই অন্যায় আবদার করতো অধ্যক্ষের কাছে। এমন কি প্রতিষ্ঠানের নিয়ম মেনে ক্লাশ উপস্থিতি না থাকলেও পরীক্ষা দেবার জন্যে চাপাচাপি করতো। এই অনায্য ও অন্যায় আবদার সংগত কারণে অধ্যক্ষ গ্রহণ করেননি। এতেই এসব বিপথগামী কুলাঙ্গার শিক্ষার্থী এমন অমানবিক আচরণ করে তাদের ক্ষমতার দাপট দেখাতে চেয়েছে। যা আজ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই কতিপয় ছাত্রলীগ নামধারী করে চলেছে। এদের এই বর্বর আচরণের কারণে ঐতিহ্যবাহী সংগঠনটি আজ প্রশ্নের মুখে পড়েছে।
রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদকে যারা এভাবে নাজেহাল করেছে তারা অবশ্য অবশ্যই বড় ধরনের অপরাধ করেছে। এদের কোন ভাবেই ছাড় দেয়া যায় না। আমরা মনে করি শিক্ষার্থী নামধারী এসব দুর্বৃত্তদের আইনে আওতায় এনে বিচার ও শাস্তি দেয়া উচিৎ। আমরা আশা করি পুলিশ সকল অপরাধীকে গ্রেফতার করে আইনের মুখোমুখি করবে।

নভেম্বর ০৪
০৪:২৭ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শিল্পের নান্দনিকতায় মুগ্ধ দর্শনার্থী

শিল্পের নান্দনিকতায়  মুগ্ধ দর্শনার্থী

রোজিনা সুলতানা রোজি : এ যেন এক অন্য সবুজের সমারোহ এবং প্রকৃতিপ্রেমীদের মিলন মেলা। গাঢ় সবুজের ফাঁকে ফাঁকে শোভা পাচ্ছে লাল, সাদা, গোলাপী, হলুদসহ হরেক রকম ফুল। টবে বসানো আস্ত আস্ত সবুজ গাছের খর্বাকৃতি। বাংলাবট, লাইকড়, তেঁতুল, কামীনি প্রভৃতি সব গাছের সমারোহ। এ যেন শিল্পীর ছোয়ায় একেকটি নান্দনিক বৃক্ষের সমাহার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত