Daily Sunshine

পপির কোলেই বাড়ছে আল-আমিন

Share

রোজিনা সুলতানা রোজি : রাজশাহীর বায়া সেইফ হোমের সেই নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে আল-আমিন। সেইফ হোমের উপ-তত্বাবায়ক লাইজু রাজ্জাক নবজাতকের এই নাম রাখেন। আল-আমিন এখন তার মা পপিরই দুধ পান করছে। পপি বুদ্ধি প্রতিবদ্ধি হলেও তার সন্তানকে ঠিকই বুকের দুধও খায়াচ্ছেন আবার কখনো কখনো আদরও করছে। আবার কেউ তার সন্তানকে নিয়ে নিতে চাইলে আত্মহত্যার হুমকিও দিচ্ছে পপি। সেইফ হোমের তত্বাবধায়নেই পপির কোলে ধীরে ধীরে বেড়ে উঠছে আল-আমিন।
লাইজু রাজ্জাক জানান, আল-আমিনের বয়স এখন প্রায় একমাস হলো। তার জন্মের কয়েকদিন পরই সেইফ হোমের সবাই মিলে আলোচনা করে তার এই নাম রাখা হয়। বর্তমানে আল-আমিন তার মা পপির দুধ পান করছে। পপি প্রতিবন্ধী হলেও তার মনোযোগ এখন অনেকটাই সন্তানের দিকেই। বর্তমানে সুস্থ রয়েছে আল-আমিন ।
তিনি আরো জানান, আল-আমিনকে অনেকেই দত্ত্বক নিতে আগ্রহ জানিয়েছে। কিন্তু সে বর্তমানে মায়ের দুধ পান করায় তা সম্ভব হচ্ছে না। অন্তত ৬ মাস সে সেইফ হোমেই মায়ের দুধ পান করবে। কেউ দত্ত্বক নিতে চাইলেও ৬ মাস পর আদালতের মাধ্যমে মা পপির অনুমতিতেই নিতে হবে।
প্রসঙ্গত, আদালতের মাধ্যমে গত ১৪ আগস্ট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী পপির ঠাঁই হয় সেইফ হোমে। তখন সে গর্ভবতি ছিলো। এরপর সেখানেই যত্ন-আত্মির পর গত একমাস আগে ফুটফুটে শিশুপুত্রের জন্ম দেয় সে। এখন শিশুপুত্রটি সেইফ হোমের তত্বাবধানেই রয়েছে। বাচ্চা প্রসবের পর থেকে প্রতিবন্ধী পপি এখন সুস্থ রয়েছে। বাচ্চাটিকে কোলেও নিচ্ছে সে। কখনো কখনো নিজপুত্রের চোখের দিকে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়েও থাকছে দীর্ঘক্ষণ। বুকের দুধও খায়াচ্ছে।
জেলার মোহনপুর থানার ওসি মোস্তাক আহমেদ জানান, উপজেলার ধুরইল বাজারে হঠাৎ ঘোরাঘুরির সময় এলাকাবাসী খবর দিলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। এরপর পুলিশ নানাভাবে তার পরিবারের অনুসন্ধান করেও ব্যর্থ হয়। ফলে থানায় জিডির (জিডি নম্বর ৫৫৫) মাধ্যমে আদালতে অজ্ঞাত হিসেবে চালান করা হয়। পরে আদালতের নিদের্শে তার ঠাঁই হয় বায়া সেইফ হোমে।

অক্টোবর ২৯
০৪:১৭ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শিল্পের নান্দনিকতায় মুগ্ধ দর্শনার্থী

শিল্পের নান্দনিকতায়  মুগ্ধ দর্শনার্থী

রোজিনা সুলতানা রোজি : এ যেন এক অন্য সবুজের সমারোহ এবং প্রকৃতিপ্রেমীদের মিলন মেলা। গাঢ় সবুজের ফাঁকে ফাঁকে শোভা পাচ্ছে লাল, সাদা, গোলাপী, হলুদসহ হরেক রকম ফুল। টবে বসানো আস্ত আস্ত সবুজ গাছের খর্বাকৃতি। বাংলাবট, লাইকড়, তেঁতুল, কামীনি প্রভৃতি সব গাছের সমারোহ। এ যেন শিল্পীর ছোয়ায় একেকটি নান্দনিক বৃক্ষের সমাহার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত