Daily Sunshine

পত্নীতলায় বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

Share

পত্নীতলা প্রতিনিধি: নওগাঁর পত্নীতলায় ডিবি পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে মেহেদী হাসান (৩২) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। বুধবার ভোররাতে পত্নীতলা উপজেলার শিহাড়া ইউনিয়নের খাড়ির ব্রীজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মেহেদী হাসান নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার সাগরপুর গ্রামের মেম্বারপাড়ার বাসিন্দা গফুর ওরফে ভোলার ছেলে। পুলিশের দাবি মেহেদি হাসান দীর্ঘদিন মাদক ও চোরাকারবারীর সাথে জড়িত। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।
নওগাঁর পুলিশ সুপার মান্নান মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গভীর রাতে মাদক বেচাকেনার খবর পেয়ে ডিবি পুলিশের একটি দল লোদিপুর খাড়ির ব্রীজ এলাকায় যায়। এসময় চোরাকারবারিরা পুলিশকে লক্ষ্যকরে গুলি চালালে পাল্টা গুলি চালায় পুলিশ। মাদক ও চোরাকারবারীদের সাথে পুলিশের বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় মেহেদী হাসান। অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়।
বন্দুক যুদ্ধের সময় তিন ডিবি পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। তাদেরকে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বন্দুক যুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে ৫০০ পিস ইয়াবা, ১০০ বোতল ফেনসিডিল, ১টি বিদেশি পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলি, ৩টি ককটেল ও ২টি চাকু উদ্ধার করে পুলিশ।
এ ঘটনায় পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল কুমার চক্রবর্তী বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পত্নীতলা থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল বলে জানাগেছে।

অক্টোবর ২৪
০৪:০৫ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শিল্পের নান্দনিকতায় মুগ্ধ দর্শনার্থী

শিল্পের নান্দনিকতায়  মুগ্ধ দর্শনার্থী

রোজিনা সুলতানা রোজি : এ যেন এক অন্য সবুজের সমারোহ এবং প্রকৃতিপ্রেমীদের মিলন মেলা। গাঢ় সবুজের ফাঁকে ফাঁকে শোভা পাচ্ছে লাল, সাদা, গোলাপী, হলুদসহ হরেক রকম ফুল। টবে বসানো আস্ত আস্ত সবুজ গাছের খর্বাকৃতি। বাংলাবট, লাইকড়, তেঁতুল, কামীনি প্রভৃতি সব গাছের সমারোহ। এ যেন শিল্পীর ছোয়ায় একেকটি নান্দনিক বৃক্ষের সমাহার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত