Daily Sunshine

বিজিবি-বিএসএফ গোলাগুলি পদ্মাপাড়ের জনজীবনে শঙ্কা

Share

মিজানুর রহমান, চারঘাট: রাজশাহীর চারঘাটে পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বিজিবির সঙ্গে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ’র গোলাগুলির ঘটনার তিনদিন পেরিয়ে গেলেও এখনো সীমান্তে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসেনি। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবির পক্ষ থেকে সীমান্তে স্বাভাবিক অবস্থা দাবি করা হলেও সীমান্তবাসীর মাঝে এক ধরনের অজানা আশঙ্কা। কখন যেন আবার কী হয়? এমন আতঙ্কে দিন পার করছেন পদ্মা পাড়ের বাসিন্দারা। রজমিনে পদ্মা পাড়ের বাসিন্দা ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এমন তথ্য।
এ বিষয়ে কথা হয় পদ্মা পাড়ের বাসিন্দা চারঘাট উপজেলার চক মোক্তারপুর এলাকার রবিউল ইসলাম, জমশেদ আলী, আরশাদ আলী, মহাদেবসহ একাধিক ব্যাক্তি বলেন, আমরা পদ্মা পাড়ের বাসিন্দা। নদীতে মাছ শিকার করে আমাদের জীবন সংগ্রাম। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে বিএসএফ এর গুলির ঘটনায় চরম আতঙ্ক নিয়ে দিন পার করছি। নদীতে কোন ভাবেই নামতে সাহস পাচ্ছি না। এমনকি নদীর কিনারে সন্ধ্যার পরে কেউ আর থাকছে। সকলেরই মাঝে এক ধরনের অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে। তারা বলেন, ইতমধ্যে মাইকিং করে নদীতে নামতে নিষেধ করায় আরো ভয়।
গোপলপুর এলাকার বাসিন্দা সাবদুল বলেন, বৃহস্পতিবারের ঘটনার পর থেকে নদীর কিনারায় কেউ জমিতে কাজও করতে সাহস পাচ্ছে না। সবসময় একটা আতঙ্ক মনের ভিতরে তারা করে ফিরছে। কখন যেন আবার কী হয়? এমন আতঙ্ক এখন পদ্মা পাড়ের অধিকাংশ বাসিন্দাদেরই মাঝে বইছে বলে দাবি করেন তারা।
এমন আশঙ্কা এখন পুরো পদ্মা পাড়ের বাসিন্দাদের মাঝে। জরুরী কাজ ছাড়া কেউ এখন আর নদীর দিকে যাচ্ছেন না।
পদ্মা পাড়ের স্কুল শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম বলেন, বিএসএফ সদস্যরা আগে তাদের সীমানায় বাংলাদেশীকে হত্যার ঘটনা ঘটালেও এখন বাংলাদেশী সীমানায় প্রবেশ করে গুলি করায় সকলের মনে আতঙ্ক কাজ করছে। যদি বিজিবির পক্ষ থেকে আতঙ্ক না করতে সকলের মনে সাহস জোগাচ্ছে।
উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম বলেন, এমন ঘটনা অতি দুঃখজনক, অনাকাঙ্খিত। তার পরও বর্তমানে সীমান্তে আতঙ্ক নেই। কিন্তু সাধারণ মানুষের মাঝে একটা ভয় তো আছেই। তবে পদ্মায় ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত কোন ধরনের জেলে মাছ ধরতে না নামেন এ জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।
চারঘাট বিজিবির হাবিলদার নুরুল ইসলাম বলেন, সীমান্তে আতঙ্ক নেই। এলাকাবাসীকে আতঙ্কিত না হতে সাহস দেয়া হচ্ছে। তাছাড়া মাছ ধরতে যাতে করে কেউ আইন অমান্য না করে সেজন্য নিদের্শনা দেয়া হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে ভারতীয় জেলে প্রনব মন্ডলকে আটক করে বিজিবি। আর এ আটক করাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সকাল এগারেটার দিকে ভারতীয় বিএসএফ সদস্যরা শূন্যরেখা অতিক্রম করে সম্পূর্ণ অবৈধ ভাবে বাংলাদেশ সীমানায় ঢুকে বিজিবির নিকট আটক ভারতীয় জেলে প্রনবকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।
এ ঘটনায় বিএসএফ সদস্যরা প্রথমেই বিজিবিকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ী গুলিবর্ষণ শুরু করে। বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। এ ঘটনায় বিএসএফ’র পক্ষ থেকে তাদের একজন সদস্য নিহত ও একজন সদস্য আহত হওয়ার দাবি করে ওইদিন সন্ধ্যায় পতাকা বৈঠকে দু দেশে ঘটনাটি অনাকাঙ্খিত মন্তব্য করে তদন্ত করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।
কিন্তু এ ঘটনার তিনদিন পেরিয়ে গেলেও এখনো পদ্মা পাড়ের সাধারণ মানুষের মাঝে বইছে এক ধরনের আতঙ্ক।

অক্টোবর ২০
০৪:১৪ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

জীবিকা যখন কান পরিস্কার

জীবিকা যখন কান পরিস্কার

স্টাফ রিপোর্টার: নগরীতে প্রায় ৪০ বছর ধরে কান পরিস্কার করে যাচ্ছেন চারঘাটের রতন আলী। তার বয়স এখন ৫৬ বছর চলছে। সেই ১৯৮০ সাল থেকে এ পেশায় জীবিকা নির্বাহ করছেন। রতন আলী চারঘাট উপজেলার খোর্দ্দগোবিন্দপুর চকরপাড়া থেকে প্রায় প্রতিদিনই রাজশাহী নগরীতে আসেন। নগরীর বিভিন্ন পাড়া মহল্লা অফিস ঘুরে ঘুরে কান পরিস্কার

বিস্তারিত




চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত