Daily Sunshine

জেলেকন্যা ছোট্ট সাফিয়ার জীবন শঙ্কায়

Share

স্টাফ রিপোর্টার : মাত্র ৫ বছর বয়স সাফিয়ার। পৃথিবীর বাস্তবতা বোঝার বয়সও হয় নি, কিন্তু অকালেই ঝরে যেতে বসেছে এই কচিপ্রাণ। এত অল্প বয়সেই সে কিডনীর জটিল রোগে ভুগছে।
সাফিয়া রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া থানাধীন শ্রীরামপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে। শফিকুল পেশায় একজন জেলে। ৬ সদস্যের পরিবারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি সে। তার একার উপার্জনে চলছে সংসার ও মেয়ের চিকিৎসা। মেয়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন তিনি। আর কুলিয়ে উঠতে পারছেন না।
এদিকে, চিকিৎসার অভাবে ছোট্ট সামিয়ার শরীর দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রচুর টাকা প্রয়োজন। কিন্তু জেলে বাবার পক্ষে সেই টাকাটা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। চোখের সামনে মেয়ে এগিয়ে যাচ্ছে মৃত্যুর দিকে; এই কষ্ট সহ্য করতে পারছেন না তিনি। মেয়েকে কিভাবে ভালো করা যায়, এ নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তিনি। তাই বাধ্য হয়ে মানুষের কাছে সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়েছেন।
রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমানের দেয়া প্রত্যয়নপত্র নিয়ে অসহায় বাবা ঘুরছেন মানুষের দ্বারে দ্বারে। আশা, যদি সমাজের সম্পদশালী হৃদয়বানরা সাহায্যের হাত বাড়ান। তাহলে বেঁচে যাবে তার সামিয়া।
কাউন্সিলর মতিউর রহমান জানান, জেলে শফিকুল একজন হত দরিদ্র মানুষ। তিনি একাই তার পুরো পরিবারের ভরণপোষন করেন। এতদিন কষ্ট করে মেয়ের চিকিৎসা করিয়েছেন। কিন্তু সামিয়ার চিকিৎসার জন্য আরো অনেক বেশি টাকার প্রয়োজন। যা তার পক্ষে যোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই মেয়েকে বাঁচাতে সাহায্যের হাত পেতেছেন। সাফিয়ার জীবন বাঁচাতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আহ্বান জানান এই কাউন্সিলর।
সাফিয়ার জীবন বাঁচাতে সাহায্য পাঠাতে পারেন সোনালী ব্যাংক রাজশাহীর গ্রেটার রোড শাখায়। যার ব্যাংক হিসাব নম্বর-৪৬০৯৪০১০০৭৭৪৪ অথবা বিকাশ নম্বর-০১৭৭৪৮৭২৬৩৫ তে সাহায্য পাঠাতে পারবেন।

অক্টোবর ২০
০৪:০৯ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

মাহবুব মোরসেদ : আকবর আলী। বয়স ৪৮ বছর। চার ভাই ও এক বোন। পিতা আব্দুল্লাহ। বাড়ী নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলার আই-হাই গ্রামে। বাবা-মা মারা গেছে অনেক আগে। সীমান্তবর্তী এই উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা গ্রাম এটি। কাজের সন্ধানে অনেক বছর আগে অন্য দেশে পাড়ি জমায় অন্য তিন ভাই, মোনতাজ, লতিফ ও বাবু।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত