Daily Sunshine

নগরীতে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামীদের হুমকিতে শঙ্কিত বাদীর পরিবার

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে যুবককে হত্যা চেস্টার মামলার আসামীদের হুমকি-ধামকিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেঠে বাদীর পরিবার। ফিরোজ আহমেদ সজিব (২০) নামের যুবককে হত্যা চেষ্টার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে, বাদীর পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিলেও পুলিশ বলছে তাদের খুজে পাওয়া যাচ্ছে না।
ছেলে সজিবের ওপর হামলার পর তার মা ফেরদৌসী বেগম এ ঘটনায় ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানায় একটি হত্যাপ্রচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। তবে আদালত থেকে জামিন না নিয়ে এসব আসামীরা এলাকার মোড়ে সকাল থেকে গভীর রাত অবধি আড্ডা দিচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখেছে।
রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে দুই সপ্তাহ মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে প্রাণে বেঁচে যাওয়া সজিব এবং তার পরিবারের সদস্যদের প্রতিনিয়ত মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে আসামীরা। বাড়ির সামনে গিয়ে দিচ্ছে অস্ত্রের মহড়া।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকার শাহীনসহ তার গ্রুপের সদস্যরা দীর্ঘদিন থেকে সজিবের কাছে চাঁদা দাবি করছিল। ্গত ২৩ সেপ্টেম্বর রাত সোয়া আটটায় সুফিয়ানের মোড়ে শাহীনের নেতৃত্বে তার সহোদর তুহিন, নাঈম, গ্রপের সদস্য জিমু, মামুন ও হৃদয়সহ অন্যরা দেশীয় ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সজিবের দোকানে হামলা চালায়।
এসময় সন্ত্রাসীরা সজিবকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে একটি অটোরিকশায় তুলে নেয়। সজিব বাধা দিলে তাকে হাঁসুয়া ও চাপাতি দিয়ে উপুর্যপরি কোপাতে থাকে। একপর্যায়ে সজিব অটোরিকশা থেকে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করলে তাকে ধরে একটি বস্তা দিয়ে মুখ ঢেকে ফেলে আবারও কোপানো হয়। এসময় সজিবের মামা নূর আলমসহ এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে এবং রাজপাড়া থানার একটি টহল পুলিশ ভ্যান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তবে এসময় তাড়া করে রায়হান নামের এক সন্ত্রাসীকে আটক করে পুলিশ।
সজিবের পিতা তাজউদ্দিন বলেন, শাহীনসহ তার তিন ভাইয়ের নেতৃত্বে লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়াসহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে উছেছে। ছিনতাই, চাঁদাবাজি এবং মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে এদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ৫-৭টি করে মামলা রয়েছে। সর্বশেষ ৫০ হাজার টাকা চাঁদা চেয়ে আমার ছেলের ওপর হামলা চালিয়েছে।
তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে সজিবকে উদ্ধারের পর তার জ্ঞান ছিল না। পেটে, পিঠে ও মাথায় ধারালো অস্ত্রের গভীর আঘাত ছিল। এছাড়া ডান হাত ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ঝুলে গিয়েছিল। রামেক হাসপাতালে দুই সপ্তাহ চিকিৎসা নেয়ার এখন বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় আছে। প্রায় ২২ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ আসামিদের ধরছে না।
তিনি আরও বলেন, গত তিনদিন আগে শাহীনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে বাড়ির সামনে মহড়া দিয়েছে। মামলা তুলে নেবার জন্য প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে। এতে তারা নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছেন। যেকোন সময় আবারও বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা।
এ ব্যাপারে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, সজিব সংকটাপন্ন অবস্থায় রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালে উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে দেখতে যান। কিন্তু আসামীদের গ্রেফতার হয়নি- এ বিষয়টি আমার জানা নেই। তিনি বলেন, আসামীদের যেন দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হয় সে ব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা দেয়া হবে।

অক্টোবর ১৬
০৪:০৩ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

তবুও স্বপ্ন দেখেন আকবর

মাহবুব মোরসেদ : আকবর আলী। বয়স ৪৮ বছর। চার ভাই ও এক বোন। পিতা আব্দুল্লাহ। বাড়ী নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলার আই-হাই গ্রামে। বাবা-মা মারা গেছে অনেক আগে। সীমান্তবর্তী এই উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা গ্রাম এটি। কাজের সন্ধানে অনেক বছর আগে অন্য দেশে পাড়ি জমায় অন্য তিন ভাই, মোনতাজ, লতিফ ও বাবু।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত