Daily Sunshine

সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিহার করতে হবে

Share

উত্তপ্ত ক্যাম্পাস প্রসঙ্গ
দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ছাত্রলীগ তথা ক্ষমতাশীল দলের ছাত্র সংগঠনের অনৈতিক নানান কর্মকান্ডের কথা গত ক’দিন বিভিন্ন গণমাদ্যমে উঠে এসেছে। প্রতিটি গণমাধ্যমে তাদের কুকৃতির খবর এখন প্রধান ও ব্যাপক আলোচনার বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। আর এই আলোচনা ও যেসব কুকৃর্তির প্রতিবাদে দেশজুড়ে বিক্ষুব্ধ ছাত্রসমাজ আন্দোলনে রেখেছেন। এটাই এখন সারাদেশে আলোচনার বিষয়।
এসবই হচ্ছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট’র শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ’র নির্মম ও পৈশাচিক হত্যাকান্ডের। এর এই হত্যাকান্ডটি ঘটিয়েছে ছাত্রলীগ তার আধিপত্যবাদী নীতি ও কৌশলের সূত্র ধরে নিজস্ব টর্চার সেলে নিয়ে। একটি ছাত্র সংগঠন নিজ শিক্ষাঙ্গনে এসব আচরণ কীভাবে করতে পারে এই প্রশ্ন স্বাভাবিকভাবেই আসতে পারে। কিন্তু সে প্রশ্ন কেউ কখনো শোনেননি। বরং অত্যাচারিরা নিরবে সহ্য করেছেন। আর যাদের এসব অনৈতিক কর্মকান্ড বন্ধ ব্যবস্থা নেয়ার কথা তারা তা দেখেননি বলে। এই অবস্থায় দিনে দিনে ছাত্রলীগ বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সুযোগের পূর্ণ সৎব্যবহার করেছেন ছাত্রলীগ যোগ দেয়অ নবীন সদস্যরাও। ফলে সব ক্যাম্পাসকেই ছাত্রলীগ তার আদর্শ থেকে যেমন দুরে সরে গেছে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি টেন্ডারবাজিসহ বিভিণ্ন অপকর্ম করিয়েছে। কথা হলো এসব অবস্থা কেন হলো, এর সহজ উত্তর নীতি আদর্শহীন রাজনীতি এবং ক্ষমতা প্রদর্শন সর্বত্র। এই অবস্থা থেকে উত্তরণে ছাত্র রাজনীতির লাগাম টেনে ধরার দরকার ছিল। কিন্তু তা করা হয়নি। তাই স্বাভাবিকভাবে উগ্নিগ্ন তারুণ্য বিপথগামী করেছেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের। আজ স্পষ্টভাবে ধরা পড়ছে। সংগত কারণে আজ বহুবিধ প্রশ্নের মুখে পড়েছে ছাত্রলীগ ও ছাত্র রাজনীতি। এই অবস্থা অবস্থায় যেসব প্রশ্নের উদ্ভব হয়েছে তার নিসরন করা জরুরী বলে আমরা মনে করি।
তবে কোনভাবেই ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করে নয়। ক্যাম্পাসে শিক্ষা গবেষণার পাশাপাশি নীতি আদর্শের চর্চা হবে, থাকতে হবে সব ধারনের সৃজনশীল কার্যক্রম করার পরিবেশ ও মুক্তভাবে মত প্রকাশের উপযুক্ত ক্ষেত্র। আর সব কিছুতেই থাকতে হবে সহনশীলতা ও সহাবস্থানের ধারা। সন্ত্রাস ও নীতি নৈতিকতাহীন কর্মকান্ড পরিহার করতে হবে সকলকে। এজন্যে এখুনি প্রস্তুত হতে হবে এবং সংগঠন থেকে সন্ত্রাসী ও অপকর্মকারীদের বের করে দিতে হবে। শিক্ষাঙগ্নকে করতে হবে শিক্ষা গবেষণা ও সৃজনশীল কর্মকান্ডের উৎকৃষ্ট স্থানে। এই লক্ষ্যেই এখন রাষ্ট্র সরকার এবং ছাত্রলীগসহ সব ছাত্র সংগঠনকে কাজ করতে হবে।

অক্টোবর ১২
০৩:২২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বাবুর্চি থেকে হোটেল মালিক আফজাল

বাবুর্চি থেকে হোটেল  মালিক আফজাল

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: ছিলেন বাবুর্চি এখন হোটেল মালিক। ৯০’ এর দশকে হোটেলের বয় হিসাবে যাত্রা শুরু এই যুবকের। আজ তিনি নিজেই একটি হোটেল পরিচালনা করছে। সুদীর্ঘ এই পেশাদার জীবনে অনেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অর্থ, খ্যাতি, সম্মান ও সর্বোপরি সবার ভালোবাসা। এ ছাড়া বাগমারার সকল হোটেল কর্মচারিরা তাকে নেতাও বানিয়েছে। তিনি

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত