Daily Sunshine

শিবগঞ্জে অস্ত্রের চালানসহ ব্যবসায়ী আটক

Share

স্টাফ রিপোর্টার, শিবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ১২টি অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদসহ আলামীন খন্দকার (২৫) নামে এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৫। এসময় এ কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাকও জব্দ কওে র‌্যাব।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার ধুপপুকুর এলাকা থেকে এসব আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়।
এ সময় ৭টি বিদেশি পিস্তল, ৫টি ওয়ান শ্যুটারগান, ১৩টি ম্যাগজিন ও ৪০ রাউন্ডগুলিসহ জব্দ করা হয় উদ্ধারকৃত এসব অস্ত্র বহনকারী একটি ট্রাক। আটক অস্ত্র ব্যবসায়ী পাবনা জেলার দাসুড়িয়া এলাকার মৃত হাফিজুর রহমানের ছেলে।
র‌্যাব-৫ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পে বুধবার সকালে এক প্রেসব্রিফিং এ র‌্যাব-৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মাহ্ফুজুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটিন দল রাত সাড়ে আটটার দিকে ধুপপুকুর এলাকায় একটি পেট্রোল পাম্পের সামনে একটি ট্রাকসহ কয়েকজনকে দাঁড়ানো অবস্থায় সন্দেহ হলে, তাদের চ্যালেঞ্জ করে র‌্যাবের সদস্যরা। এ সময় তাদের একজন দৌড়ে পালিয়ে যায় এবং আলামীনকে আটক করে র‌্যাবের সদস্যরা। এ সময় আলামীনের হাতে থাকা একটি ব্যাগে এসব আগ্নেয়াস্ত্র পাওয়া যায়।
র‌্যাব আরো জানায়, ‘প্রাথমিকভাবে জানা গেছে ট্রাক চালকের আড়ালে আলামীন দীর্ঘদিন ধরে অস্ত্র ব্যবসার সাথে জড়িত। উদ্ধারকৃত এসব অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র নাটোর বনপাড়ায় তার ডেলিভারি দেয়ার কথা ছিলো।’ তিনি আরো জানান, আদালতের মাধ্যমে তাকে রিমান্ডে নিয়ে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র চালানের হোতা এবং সংশ্লিষ্টদের খুঁজে বের করা হবে।
এ ঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের পর তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে সোপর্দ করা হয়।

অক্টোবর ১০
০৩:৫৮ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আচারেই ভরসা মর্জিনার

আচারেই ভরসা মর্জিনার

রোজিনা সুলতানা রোজি: জীবনের তাগিদেই মানুষকে বেছে নিতে হয় নানা পেশা। এটি একটি চলমান প্রকৃয়া। জীবন-যাপনের জন্য মানুষ বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত। জীবিকার জন্য নারীরাও করছেন নানা কাজ। পুরুষের পাশাপাশি তারাও সম্পৃক্ত হচ্ছেন বিভিন্ন ব্যবসায়। কেউ বড় পরিসরে তো কেউ ক্ষুদ্র পরিসরে নানা পন্যের পসরা সাজান। বিশেষ করে সমাজের দরিদ্র জনগোষ্ঠির

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত