Daily Sunshine

দুর্গাপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে হত্যার অভিযোগে সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা

Share

স্টাফ রিপোর্টার, দুর্গাপুর: রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার কাশেমপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজগর আলীকে (৫৫) হত্যার অভিযোগে এজাহার নামীয় ৩ জন ও অজ্ঞাতনামা ৪ জনকে আসামী করে বুধবার সকালে দুর্গাপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
নিহত আজগর আলীর ছেলে আবুল হাশেম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছে। এদিকে মামলা দায়ের করার পর পুলিশ আজগর আলীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।
এজাহার নামীয় আসামীরা হলেন, উপজেলার কাশেমপুর গ্রামের মৃত মসলেম মোল্লার পুত্র সান্টু মোল্লা (৩০), সবুজ মোল্লা (৩২) ও তায়েজ মোল্লা (৪২)।
থানায় দায়ের করা এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মংগলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পুকুরে আমের গাছ ধসে পড়াকে কেন্দ্র করে আজগর আলীর ভাতিজা সান্টু মোল্লা, তায়েজ মোল্লা ও সবুজ মোল্লাসহ ৫-৭ জন হাতে হাসোয়া ও লাঠিসোঁটা নিয়ে আজগর আলীকে জাপ্টে ধরে পুকুর পাড়ে নিয়ে যেতে থাকে। এ সময় কিল-ঘুষিও মারা হয় আজগর আলীকে।
ঘটনার পর আজগর আলী অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন তাকে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ সময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খুরশীদা বানু কনা জানান, ঘটনার খবর পেয়ে মংগলবার রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত সাবেক ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আজগর আলীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়।
এ ঘটনায় বুধবার সকালে আজগর আলীর ছেলে আবুল হাশেম বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে আজগর আলীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এছাড়া অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান তিনি।

অক্টোবর ১০
০৩:৫২ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আচারেই ভরসা মর্জিনার

আচারেই ভরসা মর্জিনার

রোজিনা সুলতানা রোজি: জীবনের তাগিদেই মানুষকে বেছে নিতে হয় নানা পেশা। এটি একটি চলমান প্রকৃয়া। জীবন-যাপনের জন্য মানুষ বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত। জীবিকার জন্য নারীরাও করছেন নানা কাজ। পুরুষের পাশাপাশি তারাও সম্পৃক্ত হচ্ছেন বিভিন্ন ব্যবসায়। কেউ বড় পরিসরে তো কেউ ক্ষুদ্র পরিসরে নানা পন্যের পসরা সাজান। বিশেষ করে সমাজের দরিদ্র জনগোষ্ঠির

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত