Daily Sunshine

গোদাগাড়ীতে কৃষকে পিটিয়ে দুই পা গুড়িয়ে দিল মাদক কারবারীরা

Share

স্টাফ রিপোর্টার : বর্ডার গার্ড বাংলাদেশকে (বিজিবি) মাদক ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ এনে একদল মাদক ব্যবসায়ী লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে এক কৃষককে গুরুতর আহত করেছে। আহত ব্যক্তির নাম বারসেদ আলী (৩৫)। তার বাবার নাম মোয়াজ্জেম হোসেন।
রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার চরআষাদিয়াদহ ইউনিয়নের চরকানাপাড়া গ্রামে রবিবার দুপুরে ঘটে এ ঘটনা। আহত বারসেদকে বিকেলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
এলাকাবাসী ও বারসেদের স্বজনরা জানান, কয়েকদিন আগে চরআষাড়িয়াদহ সীমান্ত এলাকায় ফেনসিডিলের একটি চালান জব্দ করে বিজিবি। বাহিনীটিকে গোপনে খবর দিয়ে এসব মাদক আটক করানোর অভিযোগ এনে স্থানীয় মাদকচক্রের কয়েকজন ঘটনার পর থেকে বারসেদের কাছে মাদকের মূল্য বাবদ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে আসছিল। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিসও করা হয়।
এদিকে রোববার দুপুরের দিকে বারসেদ আলী চরকানাপাড়া বাজারে গ্রাম্য চিকিৎসকের দোকানে ওষুধ কিনতে যান। এ সময় চোরাকারবারী দলের হোতা গিয়াস উদ্দিনের ছেলে সাইদুর রহমান, নৈয়ব আলীর ছেলে তালেম আলী, তৈয়ব আলীর ছেলে নয়ন আলী, মোসলেম আলীর ছেলে এবাদুল ও আনেছ আলীর ছেলে মতির নেতৃত্বে মাদক ব্যবসায়ীরা লোহার রড ও বাঁশের লাঠি নিয়ে বারসেদ আলীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা পিটিয়ে বারসেদের কোমর থেকে দুই পায়ের পাতা পর্যন্ত ক্ষত-বিক্ষত করে মৃতপ্রায় অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়।
মাদক কারবারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের ভয়ে বারসেদকে বাঁচাতে কেউ এগিয়ে আসার সাহস পায়নি। পরে এলাকাবাসী বারসেদকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা (প্রেমতলী) স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এদিকে রামেক হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শক্ত লাঠি বা লোহার রড দিয়ে বারসেদের দুই পা গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। রাতেই তার দুই পায়ে বড় ধরণের অস্ত্রপচার করতে হবে। বারসেদ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত অচেতন অবস্থায় ছিলেন বলেও চিকিৎকরা জানিয়েছেন।
এ ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানিয়েছেন, বারসেদের স্বজনরা ফোনে তাকে ঘটনা সম্পর্কে জানিয়েছেন। তবে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সেপ্টেম্বর ২৩
০৪:০৩ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সাইকেলে স্কুলযাত্রায় ওরা

সাইকেলে স্কুলযাত্রায় ওরা

রোজিনা সুলতানা রোজি : এমন এক সময় ছিল যখন মেয়েদের সাইকেল চালানোকে সমাজ নেতিবাচক দিক হিসেবেই দেখতো। মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে দেয়া হত যখন তারা বুঝতোই না যে বিয়ে কি? সাইকেল চালানো তো দূরের কথা মেয়েদের পড়ালেখারও তেমন সুযোগ দেয়া হত না। কিন্তু সমাজ আজ আধুনিকতার ছোঁয়ায় সচেতন হয়েছে। সমাজের

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত