Daily Sunshine

হাসপাতালে রোগী কমতির দিকে রাজশাহীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত নারীর মৃত্যু

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে শাপলা খাতুন (২৩) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। গত ৪ সেপ্টেম্বর ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। বর্তমানে তার মরদেহ হাসপাতালে রাখা হয়েছে।
ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার শাপলা খাতুনের বাড়ি রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে। তার স্বামীর নাম হাসিবুল ইসলাম। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম ফেরদৌস সোমবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে বাংলানিউজকে শাপলার মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় নিজ গ্রামে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হন শাপলা খাতুন। গত ৪ সেপ্টেম্বর তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। পরে রক্ত পরীক্ষায় তার ডেঙ্গু ধরা পড়ে।
পরে ওই ওয়ার্ডে রেখেই তার চিকিৎসা চলছিল। সোমবার সকালে তার অবস্থার অবনতি ঘটে। এ সময় তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর আজ ‘শক সিনড্রোমে’ শাপলা খাতুনের মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করেন, রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম ফেরদৌস।
এদিকে, ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে মৃত্যুর সংখ্যা এনিয়ে দুইজনে দাঁড়ালো। এর আগে গত ১২ আগস্ট রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল মালেক নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়।
তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার হাউসনগর গ্রামের গোলাম নবীর ছেলে। রাজধানী ঢাকায় রাজমিস্ত্রির কাজ করতে গিয়ে তিনি সেখানে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে তাকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিয়ে আসা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছিল।
এদিকে, মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গুর প্রকোপ কমতির দিকে। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা যেমন কমছে, তেমনি কমছে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যাও। অগাস্টের প্রথম আট দিন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ১৮ হাজার ২০৭ জন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুয়ায়ী, সোমবার সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ৭১৬ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। ঠিক এক মাস আগে গত ৯ অগাস্ট এই সংখ্যাটি ছিল দু’হাজার দু’জন। সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৩০৯১ জন চিকিৎসাধীন ছিলেন।
এর মধ্যে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে ঢাকার ৪১টি চিকিৎসা কেন্দ্রে ছিলেন ১ হাজার ৫২২ জন, সারা দেশে ১ হাজার ৫৬৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ৮৫১ জন রোগী বাড়ি ফিরে গেছেন বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে। চলতি বছরের প্রথম দিন থেকে রোববার পর্যন্ত ৭৭ হাজার ২৩০ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। আর, এই সময়ে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরেন ৭৩ হাজার ৯৪২ জন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ৯৫ দশমিক ৭ শতাংশ সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন। এই সময়ের মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ, গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গু সন্দেহে ১৯২টি মৃত্যুর তথ্যে এসেছে। এর মধ্যে ১০১টি মৃত্যু পর্যালোচনা করে ৬০টি মৃত্যু নিশ্চিত করেছে আইইডিসিআর।

সেপ্টেম্বর ১০
০৩:২৪ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

রোজিনা সুলতানা রোজি : জীবন তো চলবেই জীবনের মতো ! তবে জীবনের মান চলমান রাখতে বিভিন্ন জন বেছে নিচ্ছেন বিচিত্র পেশা। কারন, জীবনের ভার বহন করতে জীবিকা প্রয়োজন সর্বাগ্রে। কেউ ছোটবেলা তো কেউ বড় হয়ে, সবাইকেই কোনো না কোনো পেশার সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতেই হয়। যার যার সুবিধা মত তারা

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত