Daily Sunshine

এরশাদের ফরমান ও জাপার রাজনীতি

Share

এরশাদের সামরিক ফরমানের সাথে দেশের মানুষ কমবেশী সকলে পরিচিত। সামরিক এই স্বৈরশাসক রাজনীতিতে যুক্ত হলেও তাঁর সেই ফরমান জারীর রীতিনীতির তেমন একটা পরিবর্তন হয়নি। আর এক একটি ফরমান পূর্ববর্তী ফরমানকে বাতিল করেছে। হয়তো তাই যখন তিনি প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক (সিএমএলএ) ছিলেন। তখন এর ইংরেজি বর্ণমালা ধরে বলা হতো ক্যানসেল মাই লাষ্ট এ্যানান্ট মোট। অর্থাৎ আমার শেষ ঘোষণা বাতিল। এখন এরশাদ পুরোদস্তুর রাজনীতিবিদ। চালান রাজনৈতিক দল জাতীয় পার্টি। সংসদে বিরোধী দলের নেতাও তিনি। ৯০বছর বয়সী সামরিক শাসক থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে ওঠা মানুষটি তবু কেন যেন অস্থির। মূহুর্তে বদলে ফেলেন তাঁর পূর্বের সিদ্ধান্ত।
এরশাদের এই অস্থিরতা তাঁর ও তাঁর দলের রাজনীতি সম্পর্কে তাই সমাজে নানান কথা হচ্ছে। বিশেষত: ছোট ভাই জিএম কাদেরকে নিয়ে তাঁর বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথাবার্তা ও নির্দেশনা অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। তবে সব কিছুই ধৈর্যের সাথে মেনে চলেছেন ছোট ভাই এটাই হয়তো স্বৈরশাসক এরশাদের বড় পাওয়া। আর তাঁর দলের তৃণমূল পর্যায়ের বিশেষত রংপুরের নেতা-কর্মীরও এ ধরনের অস্থিরতার বিরোধী তাই তাঁরা শেষ ফরমানের পর তা যেন চেয়ারম্যান আবার কারো পরামর্শে পরিবর্তন না করেন সে জন্যে পাহারা বসান। জাপা নেতার অতি নাটকীয়তার খবর গত দু’দিন ধরে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় এসেছে।
এরশাদ এবার অসুস্থ হওয়ার পর বরংবার বলেছেন তাঁর অবর্তমানে দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন ছোট ভাই জিএম কাদের। সে মতো তিনি সাংগঠনিক নির্দেশও দেন, করেন বিরোধী দলের উপনেতা পার্টির কো-চেয়ারম্যানের পাশাপাশি। কিন্তু এ নির্দেশ পরে আবার বদলে ফেলেন, দুই পদই হারান কাদের। এতে ব্যাপক আলোচনার জন্ম হয়। এরই মাঝে গত শনিবার আবার ঘোষণা এলো ছোট ভাই কাদেরই হবেন তাঁর অবর্তমানে দলের চেয়ারম্যান। এর আগে দলের কো-চেয়ারম্যানের পদটিও ফিরিয়ে দেন। তবে উপনেতার পদটি দেননি।
এমনি অবস্থায় কী হতে যাচ্ছে জাতীয় পার্টির ভবিষ্যৎ রাজনীতিতে সে প্রসঙ্গটি জোরেশোরেও আলোচিত হচ্ছে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা এখনো বিশ্বাস করেন না এরশাদ এই সিদ্ধান্ত অটল থাকবেন কিনা সে ব্যাপারে। তারপরেও দলটির যে প্রাণশক্তি তৃণমূল তাদের সম্মিলিত চাপই হয়তো এরশাদকে একটি সিদ্ধান্তে থাকতে বাধ্য করতে পারেন। এখন কথা হচ্ছে তৃণমূল তেমন চাপ তৈরী করতে পারবে কিনা। নাকি আবারো পরিবর্তন হবে এরশাদের সিদ্ধান্ত জারি হবে নতুন ফরমান। এখন সেটাই দেখবার বিষয়।

এপ্রিল ০৮
০৩:০৯ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বাবুর্চি থেকে হোটেল মালিক আফজাল

বাবুর্চি থেকে হোটেল  মালিক আফজাল

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: ছিলেন বাবুর্চি এখন হোটেল মালিক। ৯০’ এর দশকে হোটেলের বয় হিসাবে যাত্রা শুরু এই যুবকের। আজ তিনি নিজেই একটি হোটেল পরিচালনা করছে। সুদীর্ঘ এই পেশাদার জীবনে অনেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অর্থ, খ্যাতি, সম্মান ও সর্বোপরি সবার ভালোবাসা। এ ছাড়া বাগমারার সকল হোটেল কর্মচারিরা তাকে নেতাও বানিয়েছে। তিনি

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত