Daily Sunshine

দখল দূষণ রোধে চাই কার্যকর ব্যবস্থা

Share

হারিয়ে যাচ্ছে নদী
দখল আর দূষণে দেশের প্রায় সব নদ-নদীর মানচিত্র বদলে যাচ্ছে। এরই মধ্যে হারিয়ে গেছে বহু নদী এবং এর শাখা ও উপশাখাসমূহ। নদী দখল ও দূষণ রোধে শীর্ষ আদালত নির্দেশনা দিয়েছেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নদী রক্ষার দাবিতে আন্দোলনও হচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকার আশপাশের নদী দখলমুক্ত করার কাজও শুরু হয়েছে। কিন্তু তারপরও নদী মরে যাওয়া বা হারিয়ে যাওয়া বন্ধ হয়নি। গতকালকের পত্রিকায় রাজশাহীর হারিয়ে যাওয়ার নদীর তালিকা দীর্ঘতর হওয়ার খবর যেমন দেয়া হয়েছে, ঠিক তেমনি দেশের একাধিক গণমাধ্যমে নদী দখল মুক্তির সাথে ফের দখল হয়ে যাওয়ার খবরও দিয়েছে। বিষয়টি তাই এখন সময় যথেষ্ট উদ্বেগের।
নদী বাঁচলে মানুষ বাঁচবে, বাঁচবে প্রকৃতি পরিবেশ। এমন ম্লোগানে দেশের নদী রক্ষা আন্দোলন হচ্ছে গত কয়েক দশক থেকে। দেশে পালিত হচ্ছে নদী রক্ষা ও বিশ্ব পানি দিবসও। কিন্তু এ জন্যে যে ধরনের পদক্ষেপ নেয়া দরকার ছিল তা কখনোই নেয়া হয়নি। আর নেয়া হয়নি বলে সারাদেশে নদী দখল ও দূষণ বেড়েই চলেছে। অবস্থা এতটাই খারাপ পর্যায়ে রয়েছে যে শেষ পর্যন্ত নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনকারীদের এর একটি সুষ্ঠু সমাধানে আদালতে যেতে হয়েছে। আদালত বিভিন্ন সময় এ ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়েছেন। সে সব নির্দেশনাও যথাযথ ভাবে পালিত হয়নি। হলে হয়তো দখলমুক্ত করতে কঠোর নির্দেশ দিতে হতো না আর জনগণের ভোগান্তিও বাড়তো না, হারিয়ে যেত না একে একে বহু নদী।
মানুষের প্রয়োজনেই মহান আল্লাহ তায়ালা এক এক জনপদে নদী ও পানির প্রবাহ সৃষ্টি করেছেন। তাই এগুলোর সবটাই আল্লাহ’র দান। কিন্তু এসব নদী এক শ্রেণীর মানুষরূপি দানব একের পর এক দখল করে চলেছেন। আবার এক রাষ্ট্র আর এক রাষ্ট্রকে বঞ্চিত করতে নদীর প্রবাহ আটকে দিয়েছে। এ দুটোই অপরাধ, জঘন্য অপরাধ। তাই এই দুই বিষয়কেই গুরুত্ব দিয়ে দেশের নদ-নদীগুলো বাঁচতে রাষ্ট্র ও সরকারকে ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রতিবেশীর কাছ থেকে এ জন্যে পানির নায্য হিসসা আদায় করতে হবে যেমন, তেমনি দেশের ভেতর দখল ও দূষণকারীদের বিরুদ্ধে নিতে হবে কঠোর ব্যবস্থা। দেশের মানুষ প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষায় এর কোন বিকল্প নেই। আমরা আশা করি ঢাকাসহ সারাদেশের নদ-নদী ও এর শাখা উপশাখাসমূহ রক্ষায় সরকার কার্যকর ব্যবস্থা নেবে।

এপ্রিল ০৪
০২:৫১ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বাবুর্চি থেকে হোটেল মালিক আফজাল

বাবুর্চি থেকে হোটেল  মালিক আফজাল

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: ছিলেন বাবুর্চি এখন হোটেল মালিক। ৯০’ এর দশকে হোটেলের বয় হিসাবে যাত্রা শুরু এই যুবকের। আজ তিনি নিজেই একটি হোটেল পরিচালনা করছে। সুদীর্ঘ এই পেশাদার জীবনে অনেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অর্থ, খ্যাতি, সম্মান ও সর্বোপরি সবার ভালোবাসা। এ ছাড়া বাগমারার সকল হোটেল কর্মচারিরা তাকে নেতাও বানিয়েছে। তিনি

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত