Daily Sunshine

ডাকাতির নাটক সাজিয়ে শিশুকে হত্যা করল সৎ মা

Share

সানশাইন ডেস্ক : টাঙ্গাইল পৌর শহরের আমিন বাজার এলাকায় শিশু সাইফ উদ্দিনকে (৮) শ্বাসরোধ করে হত্যা মামলায় ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন তার সৎ মা সাবরিনা বেগম সিনথি। সোমবার সন্ধ্যায় সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক মুনিরা সুলতানার কাছে তিনি এ জবানবন্দি দেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শ্যামল কুমার দত্ত জানান, শহরের আমিন বাজার এলাকায় সাইফের বাবা ভাড়া বাসায় থাকতেন। ঘটনার দিন শনিবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় শিশু সাইফকে নিয়ে টিভি দেখছিলেন তার সৎ মা সাবরিন বেগম সিনথি।

এ সময় টিভির সাউন্ড বাড়িয়ে দেয় সাইফ। বেশ কয়েকবার সাইফকে সাউন্ড কমাতে বললেও সাইফ টিভির সাউন্ড না কমানোয় তার হাত-পা বেঁধে বাসার একটি কক্ষে আটকে রাখেন সিনথি। ৩০/৪০ মিনিট পর ঘর খুলে দেখতে পান সাইফ বেঁচে নেই। পরে হাত-পা বাঁধা অবস্থাতেই সাইফকে তিনি বাথরুমে থাকা পানির বালতির মধ্যে মুখ ডুবিয়ে রাখেন। পরে ডাকাতির নাটক সাজিয়ে সাইফের বাবাকে ফোন দেন তার সৎ মা সাবরিনা বেগম সিনথি।

ফোনে সাইফের বাবা মো. সালাউদ্দিনকে সিনথি জানান, অজ্ঞাতনামা তিনজন দুষ্কৃতকারী তাদের বাসায় ঢুকে তার ও ছেলের হাত-পা বেঁধে স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে। যাওয়ার সময় তারা সাইফকে বাথরুমের পানির বালতিতে ডুবিয়ে রেখে গেছে।

খবর পেয়ে টাঙ্গাইল সদর থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করে। সিনথির ঘটনার বর্ণনা রহস্যজনক মনে হলে পুলিশ তাকে ও তার স্বামী সালাউদ্দিনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সিনথি হত্যার কথা স্বীকার করেন এবং আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হন।

সানশাইন/২১ জানুয়ারী/ রোজি

জানুয়ারি ২১
১৯:৩৩ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

পুষ্পমেলায় ২৬৫ প্রজাতির গোলাপ!

পুষ্পমেলায় ২৬৫ প্রজাতির গোলাপ!

আসাদুজ্জামান নূর : ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে হয়তো গোলাপ ফুলের জুড়ি নেই, তাই হয়তো অন্য কোন ফুলের নামে দিবস পালিত হয় না। কিন্তু ৭ ফেব্রুয়ারি পালিত হয় রোজ ডে। এদিন ভালোবাসার মানুষকে গোলাপ ফুল উপহার দেন অনেকেই। এছাড়াও গোলাপের বিশেষত্ব এটা সব ঋতুতেই পাওয়া যায়। সবার পছন্দের তালিকার শীর্ষে গোলাপ না

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত