Daily Sunshine

রাজশাহীতে হত্যা মামলায় আসামীর আত্মসমর্পণ, জেলহাজতে প্রেরণ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার একটি হত্যা মামলায় দুইজন আসামী রাজশাহীর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান তালুকদারের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। আজ সোমবার আত্মসমর্পণ জামিনের আবেদন করলে তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, একই থানা ও গ্রামের মৃত মসলেম মোল্লার পুত্র সান্টু মোল্লার একটি আম গাছের ডাল বাদীর বাড়ীর পেছনে পুকুরের উপর হেলে পড়ে। উক্ত বিষয় নিয়ে গত ২০১৯ সালের ৮ অক্টোবর বাদীর পিতা আজগর আলীর সাথে একই গ্রামের সান্টু, তায়েজ ও সবুজ আলীর বাক-বিতন্ডার এক পর্যায়ে আসামীরা মৃত আজগর আলী (৬০)-কে হাসুয়া, লাঠি দিয়ে এলোপাথারিভাবে মারপিট করার এক পর্যায়ে আজগর আলী অচেতন হয়ে পড়ে। ঘটনাস্থল থেকে লোকজনের সহায়তায় আজগর আলীকে মাইক্রোবাস যোগে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে ২০১৯ সালের ৯ অক্টোবর দুর্গাপুর থানার কাশিমপুর গ্রামের আবুল হাসেম বাদী হয়ে তার পিতাকে হত্যার অভিযোগে একই গ্রামের মসলেম মোল্লার তিন ছেলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। যা বর্তমানে তদন্তাধীন আছে।

আসামীরা গত ২৮ নভেম্বর হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করলে বিচারপতি আব্দুল হাফিজ ও বিচারপতি কাজী মোঃ ইরাজুল হক আকন্দ একটি দ্বৈত বেঞ্চ তাদের জামিন না দিয়ে রাজশাহীর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান তালুকদার এর আদালতে আত্মসমর্পণের আদেশ দেন।

সেই মোতাবেক উক্ত আসামীদের মধ্যে দুইজন আজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের প্রার্থনা করলে আদালত আসামীপক্ষ ও রাষ্ট্রপক্ষের শুনানী শেষে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আহসান হাবীব (রঞ্জু) এবং আসামীপক্ষে মোঃ আঃ বারী।

সানশাইন/০২ ডিসেম্বর/ রোজি

ডিসেম্বর ০২
২০:৩৩ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

বাবুর্চি থেকে হোটেল মালিক আফজাল

বাবুর্চি থেকে হোটেল  মালিক আফজাল

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: ছিলেন বাবুর্চি এখন হোটেল মালিক। ৯০’ এর দশকে হোটেলের বয় হিসাবে যাত্রা শুরু এই যুবকের। আজ তিনি নিজেই একটি হোটেল পরিচালনা করছে। সুদীর্ঘ এই পেশাদার জীবনে অনেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অর্থ, খ্যাতি, সম্মান ও সর্বোপরি সবার ভালোবাসা। এ ছাড়া বাগমারার সকল হোটেল কর্মচারিরা তাকে নেতাও বানিয়েছে। তিনি

বিস্তারিত




চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত