Daily Sunshine

জাতীয় চার নেতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর জীবন-মরণের সঙ্গী : রেনী

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী বলেছেন, শহীদ জাতীয় চার নেতা ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন-মরণের সঙ্গী। তাঁরা জীবন দিয়ে গেছেন, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর সাথে বৈঈমানি করেননি।

রোববার বিকেল ৫টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ কলাভবনে বঙ্গবন্ধুু সাংস্কৃতিক জোট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আয়োজনে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে স্মরণিকার প্রকাশনা উৎসবে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে শাহীন আকতার রেনী আরো বলেন, জাতির পিতার নির্দেশে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামেই লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন জাতীয় চার নেতা। তাদের মধ্যে একজন রাজশাহীর কৃতি সন্তান শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান, যিনি আমার শ^শুর।

শহীদ পরিবারের একজন সদস্য হতে পারে আমি গর্বিত। কারণ জাতীয় চার নেতা সারাজীবন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে কাজ করে গেছেন, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করে গেছেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা পর ৩রা নভেম্বর কারাগারে জাতীয় চার নেতাকেও হত্যা করা হয়। কারণ ঘাতকেরা বুঝেছিল, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে এদেশ থেকে তাঁর আদর্শ মুছে ফেলা যাবে না। এজন্যই বঙ্গবন্ধু আদর্শ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে চিরতরে মুছে ফেলার জন্যই সেদিন জাতীয় চার নেতাকে কারাগারের ভেতরে হত্যা করা হয়। এটি পৃথিবীর ইতিহাসে কলঙ্কজনক হত্যাকাণ্ড।

নারী নেত্রী রেনী আরো বলেন, কিন্তু ঘাতকদের সেই ষড়যন্ত্র, অপচেষ্টা বাস্তবায়ন হয়নি। বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের হাল ধরেছেন, তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে নিরসলভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ। আমরা প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু ও সুস্থ্যতা কামনা করছি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আবদুল খালেক বলেন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠন। বহু সংগঠন তৈরী হয়ে শেষ হয়ে গেছে কিন্তু বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সংগঠন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কোনো দিন বিলীন হবে না। এই সংগঠনের বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের জন্য তিনি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ বক্তা হিসেবে ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর ড. লায়লা আনজুমান বানু। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. পি.এম. সফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাবির সাবেক উপ-উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ নূরুল্লাহ, বিশিষ্ট নারীনেত্রী অধ্যাপিকা রাশেদা খালেকসহ সংগঠনের সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শিবলী শিহাব।

সানশাইন/২৪ নভেম্বর/ রোজি

নভেম্বর ২৪
১৯:২০ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

ডাবেই সচল বাচ্চুর জীবিকার চাকা

রোজিনা সুলতানা রোজি : সকাল থেকে রাত অবধি ডাবের সঙ্গেই সচল তার জীবিকার চাকা। প্রায় গত ৮ বছরের বেশী সময় ধরে সড়কের পাশে ফুটপাতে ডাব বিক্রি করে এক সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে তার সংসার ভালোই চলছে। ক’দিন আগেও প্রতিদিন ডাব বিক্রি করে প্রতিদিন ৬ থেকে সাতশ টাকা আয় হয়েছে তার।

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

প্রিমিয়ার ব্যাংকের সেই ফয়সালকে রিমান্ডে চায় দুদক

স্টাফ রিপোর্টার : তিন কোটি ৪৫ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের রাজশাহী শাখার কর্মকর্তা এফএম শামসুল ইসলাম ফয়সালকে সাত দিনের রিমান্ডে চায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আদালতে তার এই রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। আগামী ১ মার্চ রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে। এর আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি এফএম শামসুল ইসলাম

বিস্তারিত