Daily Sunshine

‘ভিম আড্ডায়’ রাজশাহীতে জয়া আহসান

Share

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের সব থেকে জনপ্রিয় ডিশওয়াশিং ব্রান্ড ভিম লিকুইড আয়োজন করেছে অন্য রকম এক ক্যাম্পেইন। এর নাম ‘ভিম ৩০ মিনিটের আড্ডা উইথ জয়া আহসান’। এই কাম্পেইনে বিজয়ী রাজশাহীর গৃহবধূ জান্নাতুল ফেরদৌস ঝর্ণার সাথে আড্ডা দিলেন অভিনেত্রী জয়া আহসান।

দুই বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগরীর উপশহর দুই নম্বর সেক্টরে জান্নাতুল ফেরদৌসের বাসায় যান। উদ্দেশ্যে শুধু আড্ডা। এই ৩০ মিনিট জয়া আহসানের সঙ্গে সুন্দর আড্ডা জমে ওঠে গৃহিনী জান্নাতুল ফেরদৌসের। নানা বিষয়েই গল্পে মেতে ওঠেন তারা।

ইউনিলিভার বলছে, ভিম লিকুইড এমন এক পণ্য, যা তার কার্যকরী শক্তির মাধ্যমে প্রতিদিন বাঁচিয়ে দিতে পারে জীবনের মূল্যবান ৩০ মিনিট সময়। বেঁচে যাওয়া সময় ইচ্ছে পূরণের কাজে ব্যবহার করা যায়। এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতে অভিনেত্রী জয়া আহসান ঘরে ঘরে আড্ডার মাধ্যমে সচেতনতা সৃষ্টির কাজ করছেন।

রাজশাহীতে জান্নাতুল ফেরদৌসের বাসায় এসেও সময়ের গুরুত্ব তুলে ধরলেন। বললেন, হিসাব করে দেখা গেছে একজন নারী তার জীবনে তিন বছর সময় পার করেন শুধু থালা-বাসন ধোয়ার কাজে। কিন্তু থালা-বাসন ধোয়ার কাজে যদি ভিম লিকুইড ব্যবহার করা যায় তাহলে প্রতিদিন তার ৩০ মিনিট সময় বাঁচে। এ ব্যাপারে গৃহিনীদের সচেতন করতেই এই ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হয়েছে।

নিজের বাসায় প্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানকে পেয়ে উৎফুল্ল জান্নাতুল ফেরদৌসও। তিনি বলেন, এতো বড় একজন অভিনেত্রী আমার বাসায় আসবেন, এটা কী ভাবা যায়! আমি খুব খুশি।

এর আগে ভিম বাংলাদেশ-এর ফেসবুক পেজে আয়োজন করা হয়েছিল একটি রেসিপি কনটেস্টের। সেখান থেকে বাছাই করা হয় সেরা চারজনকে। সম্প্রতি বিজয়ীদের সঙ্গে আড্ডা দিতে চট্টগ্রাম, যশোর, পুরান ঢাকা ও উত্তরায় অবস্থিত তাদের নিজ নিজ বাসায় যান জয়া আহসান।

সানশাইন/২৯ অক্টোবর/ রোজি

অক্টোবর ২৯
১৯:৫৫ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

জীবিকা যখন কান পরিস্কার

জীবিকা যখন কান পরিস্কার

স্টাফ রিপোর্টার: নগরীতে প্রায় ৪০ বছর ধরে কান পরিস্কার করে যাচ্ছেন চারঘাটের রতন আলী। তার বয়স এখন ৫৬ বছর চলছে। সেই ১৯৮০ সাল থেকে এ পেশায় জীবিকা নির্বাহ করছেন। রতন আলী চারঘাট উপজেলার খোর্দ্দগোবিন্দপুর চকরপাড়া থেকে প্রায় প্রতিদিনই রাজশাহী নগরীতে আসেন। নগরীর বিভিন্ন পাড়া মহল্লা অফিস ঘুরে ঘুরে কান পরিস্কার

বিস্তারিত




চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত