Daily Sunshine

বৃষ্টি নামাতে ব্যাঙের বিয়ে, থামাতে বিচ্ছেদ

Share

সানশাইন ডেস্ক : বৃষ্টি নামাতে ভারতের ভোপালে দুই মাস আগে দুটি মাটির তৈরি ব্যাঙের বিয়ে দেওয়া হয়। বৃষ্টি নামাতে ভারতের ভোপালে দুই মাস আগে দুটি মাটির তৈরি ব্যাঙের বিয়ে দেওয়া হয়। দেবতাকে সন্তুষ্ট করে বৃষ্টি নামাতে মাটির তৈরি দুটি ব্যাঙের বিয়ে দিয়েছিলেন স্থানীয় লোকজন। ‘উদ্দেশ্য’ সফলও হয়, ব্যাঙের বিয়ের পর নামে বৃষ্টি। কিন্তু বিধি বাম। সেই বৃষ্টি আর থামার নাম নেই। শেষে বৃষ্টি থামাতে ব্যাঙ দুটির বিচ্ছেদ ঘটিয়ে দেওয়া হয়েছে!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ভোপাল শহরে এ ঘটনা ঘটেছে। বৃষ্টির দেবতাকে সন্তুষ্ট করতে গত জুলাই মাসে আয়োজন করে মাটির তৈরি দুই ব্যাঙের বিয়ে দেওয়া হয়। এরপর বৃষ্টি নেমেছেও। কিন্তু সেই বৃষ্টি এখন আর থামার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। অতিবৃষ্টিতে অতিষ্ঠ হয়ে স্থানীয় লোকেরা এবার বেছে নিয়েছেন উল্টো পন্থা। বিয়ের পর এবার ব্যাঙ দুটির বিচ্ছেদ ঘটানো হয়েছে। বিয়ের দুই মাসের মাথায় গত বুধবার ব্যাঙ দুটির বিচ্ছেদ ঘটানো হয়। ব্যাঙ দুটির বিয়ে যেমন দেওয়া হয়েছে আয়োজন করে, বিচ্ছেদও তেমনি হয়েছে ব্যাপক আয়োজনের মাধ্যমে।

দুই ব্যাঙের বিচ্ছেদ ঘটানোর কাজটি করেছে শিবসেবা শক্তি মণ্ডল নামের একটি সংস্থা। সংস্থার এক সদস্য সুরেশ আগারওয়াল বলেছেন, ‘বৃষ্টি নামানোর উদ্দেশ্যে আমরা দুটি মাটির ব্যাঙ বানিয়ে সেগুলোর বিয়ে দিই। কিন্তু বৃষ্টি এখন এমন পর্যায়ে চলে গেছে যে বৃষ্টি বন্ধ করতে আমরা ব্যাঙ দুটির বিচ্ছেদ ঘটিয়ে দিয়েছি।’

ভারতে ব্যাঙের বিয়ে অবশ্য নতুন কোনো ঘটনা নয়। ব্যাঙের বিয়ে দিলে দেবতা সন্তুষ্ট হয়ে বৃষ্টি নামাবেন এমন বিশ্বাস থেকে দেশটির অনেক প্রান্তেই ব্যাঙের বিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটে থাকে।

ভারী বৃষ্টির কারণে এরই মধ্যে ভারতের মধ্যপ্রদেশে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বৃষ্টিতে এ পর্যন্ত নয় হাজারের বেশি ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, ভেঙে পড়েছে ২১৩টি বাড়ি। গতকালও রাজ্যের আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা জানিয়ে সতর্কসংকেত জারি করা হয়েছে।

সানশাইন/১৩ সেপ্টেম্বর/ রোজি

সেপ্টেম্বর ১৩
২০:২৮ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সাইকেলে স্কুলযাত্রায় ওরা

সাইকেলে স্কুলযাত্রায় ওরা

রোজিনা সুলতানা রোজি : এমন এক সময় ছিল যখন মেয়েদের সাইকেল চালানোকে সমাজ নেতিবাচক দিক হিসেবেই দেখতো। মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে দেয়া হত যখন তারা বুঝতোই না যে বিয়ে কি? সাইকেল চালানো তো দূরের কথা মেয়েদের পড়ালেখারও তেমন সুযোগ দেয়া হত না। কিন্তু সমাজ আজ আধুনিকতার ছোঁয়ায় সচেতন হয়েছে। সমাজের

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সরকারি চাকরি আইনের সাতটি ধারা বাতিল চেয়ে উকিল নোটিস

সানশাইন ডেস্ক: সদ্য কার্যকর হওয়া সরকারি চাকরি আইনের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক সাতটি ধারা বাতিল বা প্রত্যাহার করতে স্পিকার ও ছয় সচিবকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ রোববার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিসটি পাঠিয়েছেন। স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রী

বিস্তারিত