Daily Sunshine

পুঠিয়ায় শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা মামলায় গ্রেফতার ১

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর পুঠিয়ায় চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ৫০ উর্ধ্ব বয়সী এক ব্যক্তিকে আটক করে স্থানীয়রা। অভিযোগ উঠেছে, ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে মীমাংশার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। তবে প্রাথমিক মীমাংশার কথা অস্বীকার করেন অত্র ইউ,পি চেয়ারম্যান। পরে গভীর রাতে থানায় ধর্ষণচেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়।
আটক ব্যাক্তির নাম আবদুর রাজ্জাক (৫০)। তিনি উপজেলার ভালুকগাছি ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড পশ্চিমভাগ গ্রামের বাসিন্দা।

গতকাল রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে ভালুকগাছি ইউনিয়নের মৃধাপাড়া গ্রামে ইউনিয়ন পরিষদের একটি পরিত্যক্ত ভবনে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিশুটি ওই এলাকায় বসবাস করে এবং স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির পড়াশোনা করে। শিশুটির মা তাদের ছেড়ে চলে যাওয়ার পর দরিদ্র ভ্যানচালক বাবাকে নিয়ে তাদের সংসার।
স্থানীয়রা জানান, রোববার বেলা ১২টার দিকে ভালুকগাছি ইউনিয়ন পরিষদের একটি পরিত্যক্ত ভবন থেকে শিশুর আত্মচিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে যান। তারা দেখেন রাজ্জাক শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করছে। পরে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়োজিত গ্রাম পুলিশ মোতালেবসহ কয়েকজন তাকে আটক করে ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে এনে বেঁধে রাখেন। ইউপি চেয়ারম্যান এসে ঘটনাটি শুনে কয়েকজন চৌকিদার দ্বারা ভিকটিম ও আটক ব্যক্তিকে থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেন।
শিশুটির বরাত দিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে আবদুর রাজ্জাক শিশুটিকে একটি পরিত্যক্ত ভবনে নিয়ে গিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করছিলো। এসময় শিশুটি চিৎকার দিয়ে উঠে। অভিযোগ আছে, ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে তাদের নিয়ে যাওয়ার পর বিষয়টি মীমাংশার চেষ্টা করা হয়েছে। সেখানে মীমাংশায় ব্যর্থ হয়ে পুলিশের কাছে তাদের তুলে দেয়া হয়।
থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মুহিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে মুঠোফোনে বলেন, ভালুকগাছি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিষয়টি আপস করার চেষ্টা করে না পেরে পরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছেন। ভালুকগাছি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাকবীর হাসান আপস মীমাংশার কথা অস্বীকার করে বলেন, ইউনিয়নে কোন আপস মীমাংশার চেষ্টা করা হয়নি। বাদী-বিবাদী দু’জনই দুই ওয়ার্ডের হওয়ায় সদস্যদের সাথে আলাপ আলোচনা করে আমরা পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছি।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সাকিল উদ্দিন আহম্মেদ জানান, দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভিকটিম ও আটক ব্যক্তি থানা হেফাজতে থাকলেও তারা অভিযোগকারী কাউকে পায়নি। পরে মেয়েটির বাবাকে খবর দিলে গভীর রাতে এসে বাদী হয়ে এজাহার দাখিল করলে মামলা নেয়া হয়। সেই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আজ সোমবার সকালে আবদুর রাজ্জাককে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

সানশাইন/০৯ সেপ্টেম্বর/ রোজি

সেপ্টেম্বর ০৯
১৯:৫৯ ২০১৯

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

সেলাই মেশিনেই চল্লিশ বছর

রোজিনা সুলতানা রোজি : জীবন তো চলবেই জীবনের মতো ! তবে জীবনের মান চলমান রাখতে বিভিন্ন জন বেছে নিচ্ছেন বিচিত্র পেশা। কারন, জীবনের ভার বহন করতে জীবিকা প্রয়োজন সর্বাগ্রে। কেউ ছোটবেলা তো কেউ বড় হয়ে, সবাইকেই কোনো না কোনো পেশার সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতেই হয়। যার যার সুবিধা মত তারা

বিস্তারিত




এক নজরে

চাকরি

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

অনশনে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রাজশাহী পাটকলের আট শ্রমিক

স্টাফ রিপোর্টার : অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আমরণ অনশনের মধ্যে রাজশাহী পাটকলের আটজন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এরা হলেন, আব্দুল গফুর, জয়নাল আবেদিন, আলতাফুন বেগম, মহসীন কবীর, আসলাম আলী, মোশাররফ হোসেন, মোজাম্মেল হক ও

বিস্তারিত